টাঙ্গাইল বঙ্গবন্ধু প্রথম বিভাগ ফুটবল লীগে ইয়ুথ ক্লাব পয়েন্টের শীর্ষে

242

মোজাম্মেল হক ॥
ইয়ুথ ক্লাব (৪-০) গোলে পুলিশ দলকে হারিয়ে চ্যাম্পিয়নশীপের দৌড়ে শীর্ষে। ৪ ম্যাচে অংশগ্রহণ করে ১০ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষে। নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী উদয়ন ক্লাব ৬ পয়েন্ট নিয়ে দ্বিতীয় অবস্থানে। সোমবার (১ নভেম্বর) বিকালে টাঙ্গাইল স্টেডিয়ামে জেলা ফুটবল এসোসিয়েশন আয়োজিত বঙ্গবন্ধু প্রথম বিভাগ ফুটবল সুপার লীগের ১১তম ম্যাচে ইয়ুথ ক্লাব ও বর্তমান রানার্সআপ পুলিশ দল মুখোমুখি হয়। খেলার শুরুর আগে ৩ ম্যাচে অংশগ্রহণ করে ইয়ুথ ক্লাব ৭ ও পুলিশ দল ৩ পয়েন্ট ছিল।
খেলায় পুলিশ দল জোরালো আক্রমনভাবে আক্রমণান্তক খেলতে থাকে। কিন্তু খেলার ধারার বিপরীতে ৪ মিনিটের সময় ইয়ুথ ক্লাবের একটি বিক্ষিপ্ত পাল্টা আক্রমন থেকে ধুলটিয়ার মধ্যমাঠের কুশলী ফুটবলার রিফাত গোল করে (১-০) দলকে এগিয়ে নেয়। পিছিয়ে পড়ে খেলায় সমতা আনার জন্য পুলিশ দল আক্রমনের মাত্রা বাড়িয়ে দেয়। কিন্তু আবারো তাদের হতাশ করে খেলার ১১ মিনিটের সময় পাল্টা আক্রমনে জটলা থেকে পাওয়া বলে সোহাগ গোল করে (২-০) ব্যবধান বাড়িয়ে নেয়।
দ্বিতীয়ার্ধে পুলিশ দল নতুন ভাবে খেলায় ফেরার জন্য গোছালো ফুটবল খেলতে থাকে। কিন্তু দক্ষ স্টাইকারদের ব্যর্থতায় গোল বঞ্চিত পুলিশ ৪৮ মিনিটের সময় আবারো গোল হজম করে। রাশেদ চমৎকার ভলি শটে গোল করে (৩-০) ব্যবধান আরো বাড়ালে খেলার শেষ মিনিটে চান মিয়া গোল করে খেলার ব্যবধান (৪-০) করেন। লীগ চ্যাম্পিয়ন শীপের দৌড়ে তৃতীয় অবস্থানে আছে ৩ খেলায় একটি জয়, একটি পরাজয় এবং খেলায় ড্র করে ৪ পয়েন্ট মুসলিম রেনেসাঁ।
দু’দলে যারা খেলেছে, ইয়ুথ ক্লাব- মামুন/বাবু, নিত্য, ইমন, চান, মিজান/নিবির, রুবেল, রিফাত, সোহাগ, রাশেদ, হামিদুর ও শাহীন।
পুলিশ দল- আজম খান, ইউসুফ, রেজাউল, বেল্লাল, নাজমুল, শামীম, রাজিব, লিটন বর্মণ, নাছির ও ইমারত/ জহির।
রেফারী- সুলতান মাহমুদ, সহকারী রেফারী- আফজাল হোসেন, আল আমিন মিয়া ও আজাহারুল ইসলাম।
মঙ্গলবারের (২ নভেম্বর) খেলায় অংশগ্রহণ করবে- উদয়ন ক্লাব বনাম আকুরটাকুর যুব সংঘ।

 

 

 

ব্রেকিং নিউজঃ