সখীপুরে চাচাকে কুপিয়ে হত্যা, আটক পাঁচ

268

সখীপুর প্রতিনিধি
টাঙ্গাইলের সখীপুরে জমিজমার বিরোধের জেরে ফালু মিয়া (৫৫) নামের এক ব্যক্তিকে কুপিয়ে হত্যার অভিযোগ পাওয়া গেছে। আজ সোমবার (৮ আগস্ট)  বেলা সাড়ে ১১টার দিকে উপজেলার হাতীবান্ধা গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

স্থানীয় লোকজনের বরাত দিয়ে পুলিশ জানায়, জমিজমা নিয়ে বিরোধের জেরে বড় ভাইয়ের ছেলেরা চাচা ফালু মিয়াকে হত্যা করেন। ফালু মিয়া হাতীবান্ধা গ্রামের মৃত চান মিয়ার ছেলে। হামলায় ফালু মিয়ার স্ত্রী-সন্তানসহ চারজন গুরুতর আহত হন। তাঁদের টাঙ্গাইল জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। আহত ব্যক্তিরা হলেন নিহত ব্যক্তির স্ত্রী আজিরন্নেছা (৫০), ছেলে রিপন মিয়া (৩০), বেয়াই মোংলা মিয়া (৫০) ও তাঁর স্ত্রী হালিমা খাতুন (৪৫)।

এ ঘটনাকে কেন্দ্র করে বড় ভাই বাবর আলী (৬৫) ও ছেলে নাজিম (৩৮) সখীপুর থানায় উল্টো ভাইয়ের বিরুদ্ধে মামলা করতে আসলে রোকেয়া (২৭), রহিম (৪০) ও তাহেরা (৪০)সহ পাঁচজনকে আটক করেছে পুলিশ। আটককৃতদের জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে বলে জানিয়ে খুন হওয়ার বিষয়ে মামলা দেয়ার প্রস্তুতি চলছে বলে জানায় পুলিশ।

পুলিশ ও স্থানীয় বাসিন্দাদের সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, নিহত ফালু মিয়া ও তাঁর বড় ভাই বাবর আলীর সঙ্গে ১৫ বছর ধরে জমি নিয়ে বিরোধ চলছিল। এ নিয়ে আদালতেও একাধিক মামলা চলমান। আজ সকালে বাবর আলীর ছেলে জাফর ও নাজিমের নেতৃত্বে ১০ থেকে ১২ জনের একটি দল দেশি অস্ত্র নিয়ে ফালু মিয়ার বাড়িতে হামলা করেন। তাঁরা ফালু মিয়াকে এলোপাতাড়ি কুপিয়ে জখম করেন। একপর্যায়ে বাড়িতে থাকা অন্যান্যদের কুপিয়ে আহত করেন তাঁরা। পরে প্রতিবেশীরা এগিয়ে এসে আহত ব্যক্তিদের উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে চিকিৎসক ফালু মিয়াকে মৃত ঘোষণা করেন। আহত বাকিদের টাঙ্গাইল জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।
হাতীবান্ধা ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) ৫ নম্বর ওয়ার্ডের সদস্য আমির আলী বলেন, জমি নিয়ে দুই ভাইয়ের মধ্যে দীর্ঘ দিনের বিরোধ ছিল।

সখীপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. রেজাউল করিম বলেন, লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য টাঙ্গাইল পাঠানো হয়েছে। এ ঘটনায় পাঁচজনকে আটক করা হয়েছে।

 

ব্রেকিং নিউজঃ