বন্যার্তদের জন্য ত্রান নিয়ে সিলেট যাচ্ছে মাভাবিপ্রবির শিক্ষার্থীরা

49

 

মাভাবিপ্রবি প্রতিনিধি: ‘আমরা জনগণের টাকায় পড়াশুনা করি তাই দায়বদ্ধতা রয়েছে’ এমন প্রতিপাদ্যকে সামনে নিয়ে সাড়ে চার লক্ষ টাকার ত্রাণ সামগ্রী নিয়ে ছুটছে মাওলানা ভাসানী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা। বুধবার (২২ জুন) রাতে বিশ্ববিদ্যালয়ের বাসে করে সিলেটে বন্যায় ক্ষতিগ্রস্থদের উদ্দেশ্যে প্রতিনিধি দল রওনা করবে।

শিক্ষার্থীরা জানান, বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক-শিক্ষার্থী, কর্মকর্তা-কর্মচারী, এলাকাবাসী ও অনলাইন ব্যাংকের মাধ্যমে সংগ্রহ করা প্রায় সাড়ে চার লক্ষ টাকার ত্রাণ সামগ্রী ৬০০ টি পরিবারের মাঝে বিতরণ করা হবে। যার প্রতিটিতে থাকছে চাল ৩ কেজি, চিড়া ১.৫ কেজি, ডাল ৫০০ গ্রাম, খেজুর ৫০০ গ্রাম, বিস্কুট ৫০০ গ্রাম, চিনি ৫০০ গ্রাম, পানি ২ লিটার, স্যালাইন ৫ টি, পানি বিশুদ্ধকরণ ট্যাবলেট ২ টি, নাপা ট্যাবলেট ১০ টি, সাবান ১ টা, সাবানের গুড়া ১ প্যাকেট, মোমবাতি ৫ টি ও গ্যাসলাইট ১ টি।

তারা আরও জানান, সিলেটে বন্যায় ক্ষতিগ্রস্থদের মাঝে ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ করা হবে। এছাড়া অন্যান্য অঞ্চলের বন্যায় ক্ষতিগ্রস্থ এমন বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের মাঝে নগদ অর্থ প্রদানের পরিকল্পনা রয়েছে।

বিশ্ববিদ্যালয়ের এনভায়রনমেন্টাল সায়েন্স এন্ড রিসোর্স ম্যানেজমেন্ট বিভাগের শিক্ষার্থী মানিক শীল বলেন, দেশের যে কোন দূর্যোগে ছাত্রলীগ বসে থাকেনি। বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগসহ অন্যান্য ছাত্রসংগঠনের সম্বলিত প্রচেষ্টায় আমরা বন্যায় ক্ষতিগ্রস্থদের মাঝে ত্রাণ সামগ্রী পৌছানোর চেষ্টা করছি। আমরা জনগণের টাকায় পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়াশোনা করার সুযোগ পেয়েছি, তাদের প্রতি আমাদের দায়বদ্ধতা রয়েছে। আমি কৃতজ্ঞতা ও ধন্যবাদ জানাই বিশ্ববিদ্যালয়ের মাননীয় ভাইস-চ্যান্সেলর স্যারকে কারণ তিনি বিশ্ববিদ্যালয়ের বাস দিয়ে আমাদের এ কাজে সহযোগিতা প্রদান করছেন।

বায়োকেমিস্ট্রি এন্ড মলিকুলার বায়োলজি বিভাগের শিক্ষার্থী মোঃ সোহেল বলেন, আমরা ৮টি টিমে বিশ্ববিদ্যালয়সহ টাঙ্গাইল শহরের অলিগলি থেকে অর্থ সংগ্রহ করছি। সকলেই এর পিছনে অক্লান্ত পরিশ্রম করে গেছেন। পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী হিসেবে দেশ-সমাজ ও জনগণের কাছে আমাদের দায়বদ্ধতা রয়েছে।

 

 

ব্রেকিং নিউজঃ