সখীপুরে বনের গাছ কাটতে গিয়ে দুইজন আটক ॥ বাথরুম থেকে একজন পলাতক

75

স্টাফ রিপোর্টার ॥
টাঙ্গাইলের সখীপুর উপজেলার হতেয়া রেঞ্জের কালিদাস বিটের দাগ নং-২৪৯৭ বন বিভাগের গাছ কাটা এবং চালান করার সময় বন বিভাগের লোকজন আলামিন (২৭) এবং লালন (২৫) নামের দুইজনকে মঙ্গলবার (১ নভেম্বর) বিকালে আটক করে। এ সময় তাদের কাছ থেকে গাছ কাটার করাত, কুড়াল উদ্ধার করা হয়। পরে তাদের দু’জনকে কালিদাস বিট অফিসে নিয়ে যাওয়া হয়।
আটককৃত আজা মিয়ার ছেলে আলামিন এবং কাশেম মিয়ার ছেলে লালন উভয়ের বাড়ি উপজেলার কালিয়ান পাড়া গ্রামে।




মঙ্গলবার (১ নভেম্বর) রাত সাড়ে ১১টার দিকে তাদের আদালতে সোপর্দ করার জন্য প্রথমে তাদের টাঙ্গাইল জেলা বন কর্মকর্তার অফিসে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানে তাদের গারদ খানায় রাখা হয়। পরে গভীর রাতে সেখানে আসামি আলামিন প্রকৃতির ডাকে সারা দেয়ার জন্য বাথরুমে যায়। সেখানে প্রবেশ করে দরজা আটকে দিয়ে বাথরুমের পেছনের ভেন্টিলেটর ভেঙে পালিয়ে যায়।




এ ব্যাপারে কালিদাস বিট কর্মকর্তা শাহ আলম মিয়া টিনিউজকে বলেন, আমি এবং আমার স্টাফ মিলে আমরা দু’জন কাঠ পাচারকারীকে আটক করে রাতেই তাদেরকে আদালতে সোপর্দ করার জন্য টাঙ্গাইল জেলা বন কর্মকর্তার অফিসে পাঠানো হয়। সেখানে তাদের গারদ খানায় রাখা হয়। পরে সেখানে আসামি আলামিন ভেতর প্রবেশ করে ভেন্টিলেটর ভেঙে পালিয়ে যায়। এ ব্যাপারে টাঙ্গাইল সদর থানায় সাধারণ ডায়েরি করা হয়েছে।




এ বিষয়ে সখীপুর হতেয়া রেঞ্জের রেঞ্জ কর্মকর্তা আহাদ মিয়া টিনিউজকে বলেন, ঘটনাটি আমি অবগত হয়েছি। আসামি আলামিনের নামে থানায় জিডি করা হয়েছে। বুধবার (২ নভেম্বর) সকালে টাঙ্গাইল সদর থানায় অপর আসামি লালন মিয়াকে বন আইনে মামলা দিয়ে আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে।

ব্রেকিং নিউজঃ