সখীপুরে এমপি থেকে এবার মেয়র পদে নাসির ॥ প্রতিদ্বন্দ্বী সজীব

124

pageসখীপুর সংবাদদাতাঃ
বিএনপি থেকে দলীয় মনোনয়ন না পেয়ে নাসির উদ্দিন ২০০১ সালের জাতীয় নির্বাচনে সংসদ সদস্য পদে স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন। সেই নির্বাচনে তিনি জামানত হারিয়েছিলেন। এবার তিনি টাঙ্গাইল সখীপুর পৌরসভা নির্বাচনে মেয়র পদে দলীয় মনোনয়ন পেয়ে নির্বাচনী প্রচার চালাচ্ছেন। বিএনপি মনোনিত মেয়র প্রার্থী নাসির উদ্দিন বর্তমানে টাঙ্গাইল জেলা বিএনপির বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক।
এবার সখীপুর পৌরসভায় মেয়র প্রার্থী আবু হানিফ আজাদ (আওয়ামী লীগ), নাছির উদ্দিন (বিএনপি), ছানোয়ার হোসেন সজীব (বিএনপি-বিদ্রোহী), আয়নাল হক সিকদার (জাতীয় পার্টি-এ)। সাধারণ কাউন্সিলর প্রার্থী ৩১জন ও মহিলা কাউন্সিলর প্রার্থী ১০জন প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।
এদিকে সখীপুর পৌরসভা নির্বাচনে বিএনপি’র বিদ্রোহী প্রার্থী সাবেক মেয়র সানোয়ার হোসেন সজীবের নামে চাঁদাবাজি, অপহরণ ও দ্রুত বিচার আইনের মামলাসহ মোট আটটি মামলা রয়েছে। এর মধ্যে তিনটি মামলায় তিনি খালাস পেয়েছেন। অপর পাঁচটি মামলা বিচারাধীন রয়েছে বলে সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে। উপজেলা নির্বাচন কার্যালয়ে দেয়া হলফনামায় এসব তথ্য উল্লেখ করা হয়েছে।

অপরদিকে বিএনপি মনোনিত মেয়র প্রার্থী টাঙ্গাইল জেলা বিএনপির বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক নাছির উদ্দিনের নামে একটি বন মামলা রয়েছে। অপরদিকে আওয়ামীলীগের মেয়র প্রার্থী বর্তমান মেয়র আবু হানিফ আজাদের নামে কোন মামলা নেই বলে হলফনামা সূত্রে জানা গেছে।

সজীবের হলফনামা সূত্রে জানা যায়, সখীপুর পৌরসভার সাবেক মেয়র উপজেলা বিএনপি’র সদস্য সানোয়ার হোসেন সজীবের নামে মারামারির অভিযোগে টাঙ্গাইলের অতিরিক্ত চীফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে দায়ের করা মামলায় তিনি হাজিরা দিচ্ছেন। বন আইনে তাঁর নামে অপর মামলার চার্জ গঠনের শুনানি দিন ধার্য করা হয়েছে। আগামি বছরের ২৯ মে ওই মামলার চার্জ গঠনের শুনানি হওয়ার কথা রয়েছে। ২০০৫ সালে সখীপুর থানায় দ্রুত বিচার আইনে একটি মামলা হয়। হাইকোর্টের নির্দেশে ওই মামলাটি স্থগিত রয়েছে। কুষ্টিয়ার কুমারখালী থানা আমলী আদালতে দায়ের করা অপহরণ মামলাটিও বিচারাধীন রয়েছে। ২০০৯ সালে টাঙ্গাইলের অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ ১ নং আদালতে তাঁর নামে একটি চাঁদাবাজি মামলা হয়। মামলাটির স্বাক্ষ্য গ্রহণ চলছে।

এদিকে সানোয়ার হোসেন সজীবের নামে ১৪৪ ধারা ভঙ্গ, বোমা বিষ্ফোরণ ও হত্যা চেষ্টার অভিযোগে পৃথক তিনটি মামলায় আদালতের রায়ে তিনি খালাস পেয়েছেন।

এ ব্যাপারে সানোয়ার হোসেন সজীব বলেন, আমাকে হেয়প্রতিপন্ন করার জন্যে রাজনৈতিক কারণে বিভিন্ন সময় ওই মামলা গুলো দেয়া হয়েছে।

 

ব্রেকিং নিউজঃ