মির্জাপুরে ৭ মে গণহত্যা দিবসে শহীদ রণদা প্রসাদ ও তার পুত্র রবিকে স্মরণ

135

মির্জাপুর সংবাদদাতা ॥
টাঙ্গাইলের মির্জাপুরে (৭ মে) গণহত্যা দিবসে শহীদ দানবীর রণদা প্রসাদ সাহা এবং তার পুত্র শহীদ ভবাণী প্রসাদ সাহা রবিকে শ্রদ্ধার সঙ্গে স্মরণ করা হয়েছে। শনিবার (৭ মে) দুপুরে কুমুদিনী কমপ্লেক্সের কুমুদিনী উইমেন্স মেডিকেল কলেজের বি.পি পতি মিলনায়তনে আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন কুমুদিনী ওয়েল ফেয়ার ট্রাস্ট অব বেঙ্গল বিডি লি. এর শিক্ষা উপদেষ্টা, ভাষা সৈনিক প্রিন্সিপাল প্রতিভা মুৎসুদ্দি।
কুমুদিনী উইমেন্স মেডিকেল কলেজের প্রিন্সিপাল প্রফেসর ডা. এম এ হালিমের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন কুমুদিনী ওয়েল ফেয়ার ট্রাস্ট অব বেঙ্গল বিডি লি. এর নির্বাহী পরিচালক রাজিব প্রসাদ সাহা, শহীদ পরিবারের সন্তান সাহা প্রাণ গোপাল, ভারতেশ^রী হোমসের সাবেক ভারপ্রাপ্ত প্রিন্সিপাল অমলেন্দু সাহা, কুমুদিনী নার্সিং কলেজের প্রিন্সিপাল সিস্টার রীনা ক্রুস, কুমুদিনী উইমেন্স মেডিকেল কলেজের ভাইস প্রিন্সিপাল নিরঞ্জন কুমার সাহা, কুমুদিনী হাসপাতালের পরিচালক ডা. প্রদীপ কুমার রায় প্রমুখ।
বক্তারা বলেন, শহীদ দানবীর আরপি সাহা ও তার পুত্র ভবাণী প্রসাদ সাহা রবি ছিলেন মহান মুক্তিযুদ্ধের অন্যতম সংগঠক, শিক্ষানুরাগী ও সমাজ সেবক। শিক্ষা, স্বাস্থ্য ও চিকিৎসা সেবায় নিয়োজিত ছিলেন। রাজাকার, আলবদরদের সহযোগিতায় হানাদার বাহিনী দানবীর রণদা প্রসাদ সাহা ও তার পুত্র রবিকে ধরে নিয়ে যায়। আজও তাদের কোন খোঁজ মিলেনি।
এছাড়া এদিন হানাদার বাহিনী মির্জাপুর উপজেলা সদরের বেশকয়েক এলাকায় ঢুকে অত্যাচার, নির্যাতন, লুটপাট, অগ্নিসংযোগ এবং গণহত্যা চালায়। এ সময় হানাদার বাহিনীরা শতাধিক নারী-পুরুষ ও শিশু-কিশোরকে হত্যা করে বংশাই ও লৌহজং নদীতে নিক্ষেপ করে।
এরপর থেকেই মির্জাপুরবাসি রনদা নাট মন্দিরে কীর্তন, আলোচনা সভা, কুমুদিনী কমপ্লেক্সে প্রার্থনা সভা, কাঙ্গালী ভোজ, স্বেচ্ছায় রক্তদান কর্মসুচীর আয়োজন করে আসছে।

 

ব্রেকিং নিউজঃ