মির্জাপুরে সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে নিয়োগপ্রাপ্ত ৪৪ পিয়ন ৯ মাস যাবত কোন বেতন পাচ্ছেন না

156

10মির্জাপুর প্রতিনিধিঃ

মির্জাপুরে সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে নিয়োগপ্রাপ্ত ৪৪ পিয়ন ৯ মাস যাবত কোন বেতন পাচ্ছেন না। দীর্ঘ ৯ মাস বেতন না পওয়ায় তারা পরিবার পরিজন নিয়ে মানবেতর জীবন যাপন করছেন বলে জানা গেছে।
সংশ্লিষ্ঠ সূত্র জানায়, মির্জাপুর উপজেলার ১১৩ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে দুইটি ধাপে ১১৩ পিয়ন নিয়োগ দেয়া হয়। এর মধ্যে ৬৯ পিয়ন সরকার থেকে বেতন ভাতা পেলেও শেষের ধাপে ৪৪ টি বিদ্যালয়ে নিয়োগ প্রাপ্ত ৪৪ জন পিয়ন শুরু থেকে ৯ মাস কোন বেতন পাচ্ছেন না। জানা গেছে, শেষের ধাপে ৪৪টি বিদ্যালয়ে ৪৪ জন পিয়ন নিয়োগ দেওয়া হয়। তারা গত বছর এপ্রিলের ১ তারিখ থেকে কাজে যোগদান করেন। কিন্তু অধ্যাবধি এই ৪৪ পিয়ন কোন বেতন পাননি। দীর্ঘ ৯ মাস বেতন না পাওয়ায় তারা পরিবার পরিজন নিয়ে মানবেতর জীবন যাপন করছেন বলে জানা গেছে। নিয়োগ প্রাপ্ত অধিকাংশ পিয়নরা ২ থেকে ৩ লাখ টাকা করে ঘুষ দিয়ে চাকুরী নিয়েছেন। কিন্তু তারা এখন বলতেও পারছেন না সইতেও পারছেন না। অনেকে ধারদেনা ও ঋণ করে টাকা যোগাড় করে চাকরি নিয়েছেন বলে জানা গেছে। বিদ্যালয়ের পরিচালনা কমিটির সভাপতি ও সরকার দলীয় নেতারা পকেট ভারী করে এই পিয়ন নিযোগ দিয়েছিলেন বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।
তেলিনা সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের নিয়োগ পাওয়া পিয়ন জসিম উদ্দিন বলেন, কাজ করে যাচ্ছি কিন্তু বেতন পাচ্ছিনা। বেতন না পাওয়ায় সংসার খারাপ অবস্থায় চলছে বলে তিনি জানান। একই কথা জানালেন, মুশুরিয়াঘোনা ও ইচাইল সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের নিয়োগ পাওয়া পিয়ন বিকাশ চন্দ্র মন্ডল ও সজীব দেওয়ান। উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা খলিলুর রহমান এ বিষয়ে বলেন, জনৈক এক ব্যক্তি এ চাকুরির বিষয়ে হাই কোর্টে রিট করায় এদের বেতন আটকে গেছে। মামলাটির সুরাহা না হওয়া পর্যন্ত আমরা কিছু বলতে পারব না।

ব্রেকিং নিউজঃ