মির্জাপুরে সন্তানসহ গৃহবধূকে বাড়ি ছাড়া করল মাতবররা

84

mirzapur-tangailস্টাফ রিপোর্টারঃ

টাঙ্গাইলের মির্জাপুরে তুচ্ছ পারিবারিক ঘটনাকে কেন্দ্র করে মাতবররা গ্রাম্য সালিশে এক গৃহবধূকে ৬ লাখ টাকা জরিমানা করেছেন। আর জরিমানার টাকা পরিশোধ করতে না পারায় মাতবররা ওই গৃহবধূকে তার স্বামীর অনুপস্থিতে থাকার ঘর লিখে নিয়ে দুই সন্তানসহ বাড়ি থেকে বের করে দিয়েছেন। এ অন্যায় কাজে সহযোগিতা করেছেন গৃহবধূর শ্বশুর, শাশুড়ি, দেবর এবং দেবরের স্ত্রী। বিচারের জন্য ওই গৃহবধূ এখন দ্বারে দ্বারে ঘুরছেন। উপজেলার ১১নং তরফপুর ইউনিয়নের ডোহাতলী পাথরঘাটা গ্রামে এ ঘটনা ঘটেছে। রোববার অসহায় গৃহবধূ হাসিনা বেগম (৩০) দুই সন্তান নিয়ে সাংবাদিকদের কাছে শ্বশুর, দেবর এবং মাতবরদের অত্যাচার-নির্যাতনের চিত্র তুলে ধরেন।

হাসিনা বেগম অভিযোগ করেন, তার স্বামী মানিক মিয়া ১৭ বছর ধরে সিঙ্গাপুর থাকেন। দুই সন্তান ছেলে মেহেদী হাসান অনিক (১২) এবং মেয়ে মৌ আক্তারকে (৭) নিয়ে তিনি স্বামীর বাড়িতেই থাকতেন। স্বামীর প্রবাসে থাকার সুযোগে শ্বশুর ওয়ারেছ মিয়া, শাশুড়ি শুকুরী বেগম, দেবর আবু হানিফ, আবু হানিয়ের স্ত্রী রুমা বেগমসহ বাড়ির অন্য লোকজন তাকে অত্যাচার-নির্যাতন করে আসছেন। তুচ্ছ একটি ঘটনাকে কেন্দ্র করে আগস্ট মাসের প্রথম দিকে দেবরের স্ত্রী রুমার সঙ্গে হাসিনার কথাকাটি ও একপর্যায়ে হাতাহাতি হয়। এ ঘটনাকে কেন্দ্র করে তাকে এবং তার নাবালক শিশুপুত্র মেহেদী হাসানকে আসামি করে মামলা দায়ের করেন রুমার স্বামী (দেবর) আবু হানিফ। মামলার পরই পুলিশের ভয় দেখিয়ে এলাকার মাতবর আজিজুর রহমান বাচ্চু (ইউপি সদস্য), গফুর মাস্টার, নবীর হোসেন, বাদল, হোসেন, হারুন, সাহেদ আলী ও শ্বশুর ওয়ারেজ আলী, দেবর আবু হানিফ গ্রাম্য সালিশে তাকে (হাসিনা) ৬ লাখ টাকা জরিমানা করেন। সালিশে হাসিনা বেগম ৬ লাখ টাকা দিতে না পারায় তার স্বামী মানিক মিয়ার অনুপস্থিতিতে ঘর লিখে নিয়ে দুই সন্তানসহ তাকে বাড়ি থেকে বের করে দেন। গত দুই মাস দুই সন্তান নিয়ে ন্যায়বিচারের জন্য দ্বারে দ্বারে ঘুরছেন অসহায় হাসিনা বেগম। কিন্তু এর বিচার পাননি।

এ ব্যাপারে ইউপি সদস্য ও মাতবর আজিজুর রহমান বাচ্চুর সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, আমরা শুধু বিচারে ছিলাম। রায় দিয়েছি। ঘর লিখে নিয়েছে গৃহবধূর শ্বশুর ওয়ারেজ মিয়া। জানতে ওয়ারেজ মিয়ার সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, আমার ছেলের বৌ (হাসিনা) ভালো না। তাই মাতবরদের উপস্থিতিতে তাকে জরিমানা করা হয়েছে। টাকা দিতে না পারায় ঘর লিখে নেয়া হয়েছে।

 

ব্রেকিং নিউজঃ