মির্জাপুরে শিশু ধর্ষণের অভিযোগে ধর্ষক সুরুজ গ্রেপ্তার

49

স্টাফ রিপোর্টার, মির্জাপুর ॥
টাঙ্গাইলের মির্জাপুরে ছয় বছরের শিশু ধর্ষণের শিকার হয়েছে। সোমবার (২৪ ফেব্রুয়ারি) সকালে মেয়েটির মা মির্জাপুর থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করলে পুলিশ ধর্ষক সুরুজ মোল্লাকে (১৩) গ্রেপ্তার করেন। সে নওগাঁ জেলা সদরের চুনিয়াগাড়ী গ্রামের লাইবুল্লাহর ছেলে। ধর্ষিতা শিশুটিকে টাঙ্গাইল জেনারেল হাসপাতালের ভিকটিম সাপোর্ট সেন্টারে রাখা হয়েছে বলে পুলিশ জানিয়েছে। ঘটনাটি ঘটেছে রোববার (২৩ ফেব্রুয়ারি) বিকেলে উপজেলার গোড়াই ইউনিয়নের নাজিরপাড়া বটটেকী এলাকায়।
পুলিশ টিনিউজকে জানান, ধর্ষিতা শিশুটির বাবা-মা ও ধর্ষকের বাবা-মা মির্জাপুর উপজেলার গোড়াই ইউনিয়নের নাজিরপাড়া বটটেকী এলাকার জনৈক জয়নাল মিয়ার বাড়িতে ভাড়া থাকেন। ধর্ষিতার মা গোড়াই এলাকার কমফিট কম্পোজিট নীট লি: কারখানার পোষাক শ্রমিক ও বাবা ওই এলাকায় রিক্্রা চালান। ধর্ষকের বাবা লাইবুল্লাহ ও মা একই কারখানার পোষাক শ্রমিক। প্রতিদিনের ন্যায় উভয়ের বাবা-মা কাজে যান। বিকেলে ধর্ষিতা শিশুটি ধর্ষণকারী সুরুজ মোল্লার ঘরে টিভি দেখতে গেলে একা পেয়ে সে তাকে জোরপূর্বক ধর্ষণ করে। এতে শিশুটি রক্তাক্ত হয়ে পড়ে। সন্ধ্যার পর মেয়ের মা মেয়েটিকে অসুস্থ দেখে স্থানীয় একটি ক্লিনিকে নিয়ে গেলে সেখানকার চিকিৎসক শিশুটি ধর্ষিত হয়েছে বলে জানান এবং উন্নত চিকিৎসার জন্য মির্জাপুর কুমুদিনী হাসপাতালে পাঠান। সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক ধর্ষণের আলামত বুঝতে পেরে থানা পুলিশকে জানানোর পরামর্শ দেন।
সোমবার (২৪ ফেব্রুয়ারি) সকালে মেয়েটির মা মির্জাপুর থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করলে পুলিশ ধর্ষক সুরুজ মোল্লাকে গ্রেপ্তার করেন। এছাড়া ধর্ষিতা শিশুটিকে টাঙ্গাইল জেনারেল হাসপাতালের ভিকটিম সাপোর্ট সেন্টারে পাঠানো হয়েছে বলে মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা মির্জাপুর থানার উপপরিদর্শক (এসআই) আবু সাদেক টিনিউজকে জানিয়েছেন। ধর্ষক সুরুজ মোল্লাকে আগামীকাল মঙ্গলবার (২৫ ফেব্রুয়ারি) টাঙ্গাইল আদালতে পাঠানো হবে বলে তিনি জানিয়েছেন।

ব্রেকিং নিউজঃ