মির্জাপুরে মোটর সাইকেল চুরির হিড়িক পড়েছে

128

55555মির্জাপুর প্রতিনিধিঃ
টাঙ্গাইলের মির্জাপুরে এক সপ্তাহের ব্যবধানে ৪টি মোটর সাইকেল চুরি হয়েছে। এই চারটি মোটর সাইকেল উপজেলা সদরের বিভিন্ন বাসা বাড়ির ও অফিসের সামনে থেকে চুরি হয়। মির্জাপুরে মোটর সাইকেল চুরির হিড়িক পড়ায় মোটর সাইকেল মালিকদের মধ্যে ক্ষোভ ও আতঙ্ক বিরাজ করছে বলে জানা গেছে। মোটর সাইকেল চুরির ঘটনায় ভুক্তভোগীরা থানায় সাধারণ ডায়েরী করলেও একটি মোটর সাইকেলও উদ্ধার করতে পারেনি পুলিশ।
জানা গেছে, মির্জাপুরে গত বছরের শুরুতেই পুলিশ ও স্থানীয় প্রশাসন সক্রিয় হয়ে অভিযান চালালে মাদক, জুয়াসহ বিভিন্ন অপরাধমূলক কর্মকান্ড কমে যায়। কিন্তু সম্পতি পুলিশ ও প্রশাসনের সেই কর্ম তৎপরতা স্থিমিত হয়ে গেলে চুরি, ডাকাতি ও ছিনতাই বেড়ে যায়। এছাড়া যারা পুলিশের অভিযানে গ্রেফতার হয়ে জেলে আটক ছিল তাদের অনেকেই জেল হাজত থেকে জামিনে বেরিয়ে এসেছেন। এদিকে সদর সহ বিভিন্ন স্থানে চুরি, ছিনতাইসহ নানা অপরাধমূলক কর্মকান্ড বৃদ্ধি পেয়েছে। এর মধ্যে গত এক সপ্তাহের ব্যবধানের উপজেলা সদরে ৪টি পালসার মোটর সাইকেল চুরির ঘটনা ঘটে। গত মঙ্গলবার দুপুরে উপজেলা পরিষদের সামনে থেকে লতিফপুর ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সভাপতি রাজীব হোসেন, গত বৃহস্পতিবার সদরের সৈয়দ টাওয়ারের সামনে থেকে ঠিকাদার মনির হোসেন, গত রোববার দুপুরে নিজ বাসা থেকে পৌর শ্রমিক লীগের সভাপতি ও মির্জাপুর বাস কোচ মিনিবাস শ্রমিক ইউনিয়েনের সাধারণ সম্পাদক আলী হোসেন এবং গত বুধবার স্থানীয় সাংসদ সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি একাব্বর হোসেনের এপিএস উপজেলা যুবলীগের যুগ্ম আহবায়ক, মির্জাপুর প্রেসক্লাবের সাবেক সাধারণ সম্পাদক শামীম আল মামুনের পালসার মোটর সাইকেল চুরি হয়। এ ব্যাপারে ভুক্তভোগী সবাই মির্জাপুর থানায় সাধারণ ডায়েরী করেছেন বলে জানা গেছে। এছাড়া সদরের সদয় কৃষ্ণ মডেল উচ্চ বিদ্যালয়ের কম্পিউটার ল্যাবের কক্ষের জানালা ভেঙ্গে ৪টি কম্পিউটার চুরের দল চুরি করে নিয়ে যায়।
মির্জাপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মাইন উদ্দিন বলেন, চুরির ঘটনায় পুলিশের অভিযান অব্যাহত রয়েছে। তবে এই চুরির ঘটনাগুলো পুলিশের দুশ্চিন্তা বলে তিনি উল্লেখ করেন।

ব্রেকিং নিউজঃ