মির্জাপুরে ভারতীয় হাইকমিশনার পংকজ শ্বরনের পূঁজা মন্ডপ পরিদর্শন

139

Mirzapur_Picture_22-10-2015স্টাফ রিপোর্টারঃ

বাংলাদেশে নিযুক্ত ভারতীয় হাইকমিশনার পংকজ শ্বরণ বলেছেন, সরকার বিভিন্ন দেশের দূতাবাস ও হাইকশিনারদের নিরাপত্তার জন্য কঠোর পদক্ষেপ গ্রহণ করেছেন। এজন্য সরকার ধন্যবাদ পাওয়ার যোগ্য। সারা দেশে উৎসব মুখর পরিবেশে হিন্দু সম্প্রদায়ের সর্ববৃহৎ ধর্মীয় উৎসব শারদীয় দূর্গা পূঁজা উৎসব মুখর পরিবেশে অনুষ্ঠিত হচ্ছে দেখে আমি মুগ্ধ হয়েছি। তিনি আরও বলেন, বাংলাদেশ যে একটি চমৎকার সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির দেশ তা বর্তমান সরকারের জন্য সাফল্য বলে আমি মনে করি।
তিনি বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় টাঙ্গাইলের মির্জাপুরে কুমুদিনী কমপ্লেক্সের এবং দানবীর রনদা প্রসাদ সাহার বাড়ি ও মির্জাপুরে অনুষ্ঠিত বিভিন্ন পূঁজা মন্ডপ পরিদর্শনে এসে একথা বলেন। ভারতীয় হাইকমিশনানের নের্তৃত্বে বাংলাদেশে নিযুক্ত ভারতীয় হাইকমিশনের একটি প্রতিনিধি দল বিকেলে বিভিন্ন পূঁজা মন্ডপ পরিদর্শন করেন। প্রতিনিধি দলের সদস্যরা কুমুদিনী কমপ্লেক্স ছাড়াও ভারতেশ্বরী হোমস, কুমুদিনী হাসপাতাল, মেডিকেল কলেজ, নার্সিং স্কুল ও কলেজসহ বিভিন্ন স্থাপনা পরিদর্শন করেন।
এদিকে সন্ধ্যায় ভারতীয় হাইকমিশনার কুমুদিনী কমপ্লেক্সের ভারত সরকারের অর্থায়নে নির্মিত সমন্মিত বর্জ্য ব্যবস্থাপনা সিস্টেম প্লান্টের শুভ উদ্ভোধন করেন। এ সময় হাইকমিশনার পংকজ শ্বরণ বলেন, ধর্ম যার যার উৎসব সবার। সবাই মিলে মিশে বিভিন্ন উৎসব উপভোগ করে থাকেন। তাই বাংলাদেশ সত্যিই একটি সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির দেশ।
এ সময় কুমুদিনী কল্যাণ সংস্থার নির্বাহী পরিচালক রাজিব প্রসাদ সাহা, পরিচালক প্রতিভা মুৎসুদ্দি, মতি সাহা, কুমুদিনী হাসপাতালের পরিচালক ডা. দুলাল চন্দ্র পোদ্দার, কুমুদিনী উইমেন্স মেডিকেল কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর ডা. এম এ হালিম, টাঙ্গাইল জেলা পরিষদের প্রশাসক ফজলুর রহমান ফারুক, স্থানীয় সংসদ সদস্য ও সড়ক পরিবহন এবং সেতু মন্ত্রনালয়ের সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা একাব্বর হোসেন, বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব গয়েশ্বর চন্দ্র রায়, সাবেক হাইকমিশনার ও সাবেক প্রধানমন্ত্রী বেগম খালেদা জিয়ার উপদেষ্টা ইনাম আহমেদ চৌধরী, মির্জাপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসার মাসুম আহমেদ, থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মাইন উদ্দিন মাইনসহ প্রশাসনের কর্মকর্তাগন উপস্থিত ছিলেন।

ব্রেকিং নিউজঃ