মির্জাপুরে ব্ল্যাকমেইল করে ধর্ষনের অভিযোগে ধর্ষককে আটক করেছে র‌্যাব

104

স্টাফ রিপোর্টার ॥
টাঙ্গাইলের মির্জাপুরে ব্ল্যাকমেইল করে ধর্ষনের অভিযোগে ধর্ষককে আটক করেছে র‌্যাব। সোমবার (১০ জানুয়ারি) সন্ধ্যায় টাঙ্গাইলের মির্জাপুর উপজেলার পাকুল্লা এলাকায় অভিযান চালিয়ে ছিতেশ্বরী গ্রামের মইনুল হকের ছেলে অভিযুক্ত ধর্ষক লুৎফুর রহমানকে (৪০) আটক করেছে। এ সময় তার কাছ থেকে মোটরসাইকেল, একটি মোবাইল, একটি ল্যাবটপ ও নগদ ৪ হাজার ৮৬০ উদ্ধার করা হয়েছে।
গোপন সংবাদের ভিত্তিতে র‌্যাব-১২, সিপিসি-৩, টাঙ্গাইলের কোম্পানী কমান্ডার লেঃ কমান্ডার আব্দুল্লাহ আল মামুন প্রেসবিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে জানান, ধর্ষক লুৎফুর রহমান (৪০) একটি প্রাইভেট ঔষুধ কোম্পানীতে চাকুরী করেন। চাকুরীর সুবাদে সে ভিকটিম মহিলার সাথে প্রেমের সম্পর্ক তৈরি করে ভিকটিমকে ফুসলিয়ে ধর্ষণ করে এবং গোপনে ভিডিও ও ছবি তুলে রাখে। পরবর্তীতে ধর্ষক লৎফুর, ভিকটিমকে ব্ল্যাকমেইল করে ভিডিও ও ছবি প্রকাশের ভয় দেখিয়ে দীর্ঘদিন যাবৎ ধর্ষণ করে এবং বিভিন্ন সময়ে ভিকটিমের ভাষ্যমতে প্রায় ২০ লক্ষ টাকা ও ১৫ ভরি স্বর্ণলংকার হাতিয়ে নেয়। ধর্ষক সর্বদা ভিকটিমকে প্রচন্ড মানসিক চাপে রাখত এবং তার সাথে দেখা করার জন্য বলত এবং তার গোপনে ধারনকৃত ভিডিও ও ছবি বিভিন্ন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল করার হুমকি প্রদান করত। ভিকটিম নিরুপায় হয়ে টাঙ্গাইল র‌্যাব অফিসে লিখিত অভিযোগ দায়ের করে এবং র‌্যাব ঘটনার সত্যতা পায়।
র‌্যাবের আভিযানিক দল সোমবার (১০ জানুয়ারি) সন্ধ্যায় ধর্ষক লুৎফরকে (৪০) মির্জাপুরের পাকুল্লা হতে আটক করে ও ধর্ষকের বিরুদ্ধে নারী ও শিশু নির্যাতন এবং পনোগ্রাফি আইনে মির্জাপুর থানায় মামলা করার প্রস্তুতি গ্রহণ করা হয়েছে। ধর্ষকের মোবাইল হতে ধারনকৃত ভিডিও ও ছবি উদ্ধার করে মামলার আলামত হিসেবে জব্দ করা হয়েছে।

ব্রেকিং নিউজঃ