মির্জাপুরে বিএনপির সম্মেলনকে কেন্দ্র্র করে উত্তেজনা

99

স্টাফ রিপোর্টার ॥
বিএনপির কেন্দ্রীয় কমিটির শিশু বিষয়ক সম্পাদক আবুল কালাম আজাদ সিদ্দিকী ও নির্বাহী কমিটির সদস্য সাঈদুর রহমান সাঈস সোহরাবের নেতৃত্বে দ্বিধাবিভক্ত হয়ে পড়েছে মির্জাপুর উপজেলা বিএনপি। আগামী ৯ অক্টোবর আহুত সম্মেলনকে কেন্দ্র করে মির্জাপুর উপজেলা ও পৌর বিএনপির ত্রিবার্ষিক সম্মেলনকে কেন্দ্র করে এলাকায় দুই গ্রুপের মধ্যে উত্তেজনা বিরাজ করছে।

শুক্রবার (৭ অক্টোবর) বিকেলে মির্জাপুর প্রেসক্লাব মিলনায়তনে সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে আবুল কালাম আজাদ সিদ্দিকী কর্তৃক আহুত ত্রিবার্ষিক সম্মেলন প্রতিহত করার ঘোষণা দেন নির্বাহী কমিটির সদস্য সাঈদুর রহমান সাঈস সোহরার ও জেলা বিএনপির সাবেক সদস্য ফিরোজ হায়দার খান।


(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});

এ সময় বিএনপির কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য সাইদুর রহমান সাইদ সোহরাব ছাড়াও টাঙ্গাইল জেলা বিএনপির সাবেক সদস্য ফিরোজ হায়দার খান, উপজেলা শ্রমিক দলের সাবেক সভাপতি কুব্বত আলী মৃধা, পৌর বিএনপির সাবেক সহ-সভাপতি সোহরাব হোসেন, উপজেলা বিএনপির আহবায়ক কমিটির সদস্য রফিকুল ইসলাম, পৌর বিএনপির সাবেক যুগ্ম সম্পাদক খন্দকার মোবারক হোসেন প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

সংবাদ সম্মেলনে বক্তারা বলেন, বিএনপির জাতীয় নির্বাহী কমিটির শিশু বিষয়ক সম্পাদক আবুল কালম আজাদ সিদ্দিকী দলের ত্যাগী নেতাকর্মীদের বাদ দিয়ে পকেট কমিটি গঠনের লক্ষে তার বাড়িতে সম্মেলনের প্রস্তুতি নিচ্ছেন। এই সম্মেলন বন্ধ করার জন্য আমরা বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানকে চিঠি দিয়েছি। চিঠির অনুলিপি কেন্দ্রীয় নেতাদেরও দেয়া হয়েছে।


(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});

নেতৃবৃন্দ বলেন, অগণতান্ত্রিকভাবে তার বাড়িতে আহবান করা এই সম্মেলন বন্ধ করা না হলে আমরা মির্জাপুর কলেজ মাঠে বিএনপির ত্যাগী নেতাকর্মীদের নিয়ে উন্মুক্ত স্থানে সম্মেলনের মাধ্যমে শক্তিশালী কমিটি গঠন করবো।

পকেট কমিটি গঠনের লক্ষে ইতোমধ্যে আবুুল কালাম আজাদ সিদ্দিকী তার স্ত্রী ফাতেমা আজাদকে মির্জাপুর উপজেলা বিএনপির আহবায়ক করেছেন। সেই ঘরোয়া কমিটি দিয়ে এখন নিজের বাড়ির আঙ্গিনায় সম্মেলনের প্রস্তুতি নিচ্ছেন। আবুল কালাম আজাদের বাড়িতে আহুত সম্মেলন বন্ধ করা না হলে যে কোন মূল্যে তা প্রতিহত করার ঘোষণা দেন নেতৃবৃন্দ।

 

ব্রেকিং নিউজঃ