মির্জাপুরে চিকিৎসক, শিক্ষকসহ ৭ জনের করোনা পজিটিভ

81

স্টাফ রিপোর্টার, মির্জাপুর ॥
টাঙ্গাইলের মির্জাপুরে সাত জন করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। আক্রান্তদের মধ্যে তিনজন চিকিৎসক, তিনজন শিক্ষক ও একজন নার্স রয়েছেন। কয়েক মাস পর মির্জাপুরে আবার করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ার খবর ছড়িয়ে পড়লে মানুষের মধ্যে আতঙ্ক দেখা দিয়েছে। বুধবার (১৯ জানুয়ারি) রাতে মির্জাপুর উপজেলা কমপ্লেক্সের একটি সুত্র সাতজন আক্রান্ত হওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।
মির্জাপুর সরকারী স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের পরিসংখ্যানবিদ মৃদুলুর রহমান সাংবাদিকদের জানান, উপসর্গ নিয়ে বুধবার (১৯ জানুয়ারি) ১৩ জন রোগী পরীক্ষার জন্য নমুনা দেন। তাদের মধ্যে ৭ জনের করোনা পজেটিভ আসে। করোনা পজিটিভ আসা ব্যাক্তিরা হলেন- ভাতগ্রাম সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষিকা কনিকা সরকার, তার স্বামী ও বাগজান সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক তাপস কুমার সরকার, সরিষাদাইর সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক মৃত্তিকা সরকার, কুমুদিনী উইমেন্স মেডিকেল কলেজের তিন চিকিৎসক ডা. তালাত, ডা. ডালিয়া ও ডা. হিরা এবং উপজেলা সরকারী স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে কর্মরত সিনিয়র নার্স শিরিন আক্তার।
কয়েক মাস পর মির্জাপুরে আবার করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ার খবর ছড়িয়ে পড়লে মানুষের মধ্যে কিছুটা আতঙ্ক দেখা দিয়েছে। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক উপজেলার বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের কয়েকজন শিক্ষক টিনিউজকে জানান, মহামারি করোনা ভাইরাস মোকাবেলায় শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ রাখা প্রয়োজন।
মির্জাপুর উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার আলমগীর হোসেন টিনিউজকে জানান, তিনজন শিক্ষক করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ার খবর তিনি শুনেছেন। বিষয়টি উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে অবহিত করা হয়েছে। পরবর্তী সরকারি নির্দেশনা না আসা পর্যন্ত বিদ্যালয়ের শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের স্বাস্থ্য বিধি মেনে চলার জন্য পরামর্শ দেওয়া হয়েছে।
মির্জাপুর উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. ফরিদুল ইসলাম টিনিউজকে বলেন, উপজেলা প্রশাসনের সঙ্গে সমন্বয় করে মহামারি করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে স্বাস্থ্য সচেতনা বৃদ্ধি এবং সকল শ্রেণি পেশার মানুষকে স্বাস্থ্য বিধি মেনে চলতে হবে।

 

 

ব্রেকিং নিউজঃ