মির্জাপুরে গ্যাসের অবৈধ সংযোগের মামলার আসামী কাউন্সিলর প্রার্থী ও বর্তমান প্যানেল মেয়র

90

10মির্জাপুর প্রতিনিধিঃ
টাঙ্গাইলের মির্জাপুর পৌরসভা নির্বাচনে তিন নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর প্রার্থী পৌরসভার বর্তমান এক নম্বর প্যানেল মেয়র আলী আজম ছিদ্দিকী গ্যাসের অবৈধ সংযোগের মামলার আসামী। মির্জাপুর পৌরসভা নির্বাচনের দায়িত্বপ্রাপ্ত রিটার্নিং কর্মকর্তার কাছে দেয়া তাঁর হলফনামা সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।
হলফনামায় উল্লেখ করা হয়েছে, গত বছরের (২০১৪) ১৯ মে বাংলাদেশ গ্যাস আইন ২০১০ এর ১২(১)/১৫/১৯ ধারায় মির্জাপুর থানায় (মামলা নম্বর ১৮) তাঁর নামে মামলাটি হয়। মামলাটি বর্তমানে টাঙ্গাইলের জুডিসিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট আমলী আদালত মির্জাপুরে বিচারাধীন আছে। মির্জাপুর থানা সূত্র মতে, টাঙ্গাইলের তিতাস গ্যাসের ম্যানেজার সুরুয আলম বাদী হয়ে প্রায় ৩০ জনকে আসামী করে মামলাটি করেন।
মামলার এজাহারে উল্লেখ করা হয়, আসামীরা মির্জাপুরের বিভিন্ন স্থানে এলাকাবাসীর কাছ থেকে ৩০ হাজার হতে ৭০ হাজার টাকা নিয়ে গ্যাসের অবৈধ সংযোগ দেয়। এ মামলায় টাঙ্গাইল পূর্ব আদালত পাড়ার মুকুল সাহা নামে এক ব্যাক্তিকে প্রধান আসামী করা হয়। আলী আজমের সাথে তাঁর বড় ভাই পনিরুজ্জামানকেও আসামী করা হয়।
গত বছরের ২৭ সেপ্টেম্বর মির্জাপুর থানার তৎকালীন উপপরিদর্শক (এসআই) শ্যামল কুমার দত্ত মামলার প্রধান আসামী মুকুল সাহাকে পলাতক দেখিয়ে বাকীদের অব্যাহতি চেয়ে আদালতে অভিযোগ পত্র (নম্বর-২৭৭) দেন। তবে মামলাটি পুনরায় তদন্তের জন্য চলমান বলে আলী আজমের দেয়া হলফনামা থেকে জানা গেছে।
আলী আজম ছিদ্দিকী গ্যাস সংযোগের জন্য আর্থিক লেনদেনের সাথে জড়িত নয় বলে দাবী করেন।
মির্জাপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ মাইন উদ্দিন জানান, মামলাটি টাঙ্গাইল ডিবি তদন্ত করছে। ডিবির (ওসি) গোলাম মাহফীজুর রহমান জানান, অধিকতর তদন্তের জন্য দেয়া আদালতের নির্দেশনা অনুযায়ি মামলাটি তদন্ত করা হচ্ছে।

ব্রেকিং নিউজঃ