মির্জাপুরে ওই শিক্ষক নেতা মনজুরকে কারণ দর্শানোর পত্র

199

স্টাফ রিপোর্টার ॥
এমপি মমতাজকে নিয়ে বাজে মন্তব্য করায় বাংলাদেশ প্রাথমিক শিক্ষক সমিতি টাঙ্গাইলের মির্জাপুর উপজেলা শাখার (তোতা-গাজী) সভাপতি মনজুর কাদেরকে কারণ দর্শানোর পত্র দেয়া হয়েছে। আগামী সাত কার্য দিবসের মধ্যে জবাব দেয়ার জন্য পত্রে উল্লেখ করা হয়েছে। মঙ্গলবার (২৬ জুলাই) সকালে মির্জাপুর উপজেলা শিক্ষা অফিসার আলমগীর হোসেন তাকে এই পত্র দেন।

পত্রটির অনুলিপি বিভাগীয় উপপরিচালক, টাঙ্গাইলের জেলা প্রশাসক, মির্জাপুর উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা, জেলা শিক্ষা অফিসার ও উপজেলা সহকারি শিক্ষা কর্মকার্তাকে দেয়া হবে বলে উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা আলমগীর হোসেন জানিয়েছে।
সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে শিক্ষক নেতা মনজুর কাদেরের এ মন্তব্য ঘিরে ব্যাপক সমালোচনা শুরু হয়েছে।

রোববার (২৪ জুলাই) অধ্যাপক ড. অধীর সরকারের ফেসবুক পেজের একটি লেখায় শিক্ষক নেতা মনজুর কাদের মমতাজ বেগম এমপিকে নিয়ে বাজে মন্তব্য করেন। পরে এ বিষয়ে ব্যাপক আলোচনা ও সমালোচনা শুরু হলে মন্তব্যটি মুছে ফেলেন তিনি।

অভিযুক্ত মনজুর কাদের উপজেলার ভাওড়া ইউনিয়নের কামারপাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক। ওই শিক্ষক নেতা মির্জাপুরে আওয়ামী লীগ নেতাদের সাথে ছবি তুলে বিভিন্ন ধরনের সুবিধা নিলেও তার ভেতরের কথাগুলো প্রকাশ পেয়েছে বলে সাধারণ মানুষ মন্তব্য করেছেন।

 

বাংলাদেশ প্রাথমিক শিক্ষক সমিতি মির্জাপুর উপজেলা শাখার (তোতা-গাজী) সাধারণ সম্পাদক আজাদ রহমান টিনিউজকে বলেন, মন্তব্যটি আমি দেখিনি। তবে একজন শিক্ষক হিসেবে মনজুর কাদেরের এমন মন্তব্য কাম্য নয়।

এ বিষয়ে অভিযুক্ত শিক্ষক মনজুর কাদের টিনিউজকে বলেন, আমি ভুল করেছি। এজন্য সবার কাছে ক্ষমা প্রার্থী। ফেসবুক থেকে তার মন্তব্যটি তুলে নিয়েছেন বলেও জানান তিনি।

মির্জাপুর উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ব্যারিস্টার তাহরীম হোসেন সীমান্ত টিনিউজকে বলেন, একজন সংসদ সদস্যের বিরুদ্ধে এ ধরনের মন্তব্য করে তিনি ধৃষ্টতা দেখিয়েছেন। তার বিরুদ্ধে মানহানি মামলা হওয়া উচিত।

এ বিষয়ে মির্জাপুর উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মীর শরীফ মাহামুদ টিনিউজকে বলেন, এটি একটি নিন্দনীয় বিষয়। ওই শিক্ষকের বিরদ্ধে আইনী ব্যবস্থা হওয়া দরকার।

এ ব্যাপারে মির্জাপুর উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা আলমগীর হোসেন টিনিউজকে বলেন, মনজুর কাদেরকে অফিসে ডেকে এনে মঙ্গলবার (২৬ জুলাই) কারণ দর্শানোর নোটিশ দেওয়া হয়েছে। আগামী সাত কার্য দিবসে জবাব চাওয়া হয়েছে। জবাব পাওয়ার পর প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে তিনি জানান।

ব্রেকিং নিউজঃ