মির্জাপুরে এসএসসি পরীক্ষার্থীর বিষপানে আত্মহত্যা

43

স্টাফ রিপোর্টার, মির্জাপুর ॥
টাঙ্গাইলের মির্জাপুরে প্রেমিক আসাদ শিকদার শাকিল বিয়ে না করায় প্রেমিকা এসএসসি পরীক্ষার্থী সুমাইয়া শাওরিন নুরি (১৬) বিষপানে আত্মহত্যা করেছে বলে অভিযোগ রয়েছে। শনিবার (১৪ জানুয়ারি) রাতে উপজেলার ফতেপুর ইউনিয়নের পারদিঘী গ্রামে এই ঘটনা ঘটে।
সুমাইয়া শাওরিন নুরি উপজেলার ফতেপুর ইউনিয়নের ১ নম্বর ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি পারদিঘী গ্রামের আসাদুজ্জামান খান আলীর মেয়ে। আসাদ শিকদার শাকিল ও সুমাইয়া শাওরিন নুরি ফতেপুর উচ্চ বিদ্যালয় থেকে এসএসসি পরীক্ষার্থী।




পুলিশ, ইউপি চেয়ারম্যান ও এলাকাবাসী সূত্রে জানা গেছে, ওই ইউনিয়নের ৩ নম্বর ওয়ার্ড ফতেপুর গ্রামের সাহেদ আলী সিকদারের ছেলে আসাদ সিকদার শাকিল (১৭) সাথে সুমাইয়া শাওরিন নুরির প্রেমের সম্পর্ক ছিল। এই সম্পর্কের সূত্র ধরে নুরি শনিবার দুপুরে বিয়ের দাবিতে শাকিলের বাড়িতে উঠে। খবর পেয়ে নুরির বড় বোন মৌসুমী শাকিলের বাড়ি থেকে তাকে নিয়ে ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুর রউফ মিয়ার বাড়িতে যান। সেখানে নুরিকে বুঝিয়ে সুজিয়ে বাড়ি নিয়ে যাওয়া হয়। বাড়িতে নিয়ে নুরিকে তার পরিবারের লোকজন বকাঝকা করে। একপর্যায় সবার অজান্তে রাতে নুরি বিষপান করে। রাত সাড়ে নয়টার দিকে কুমুদিনী হাসপাতালে নেওয়া হলে সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করে।




খবর পেয়ে মির্জাপুর থানা পুলিশ মরদেহ উদ্ধার করে টাঙ্গাইল শেখ হাসিনা মেডিকের কলেজ হাসপাতালে ময়না তদন্ত শেষে রবিবার সন্ধায় নুরির মরদেহ পরিবারের কাছে হস্তান্তর করে।
ফতেপুর উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক ফরিদ মিয়া জানান, আসাদ শিকদার শাকিল ও সুমাইয়া শাওরিন নুরি তার বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী। তারা এ বছর এসএসসি পরীক্ষার্থী।
মির্জাপুর থানার অফিসার ইনচার্জ শেখ আবু সালেহ মাসুদ করিম বলেন, বিয়ের দাবি পুরণ না হওয়ায় ওই স্কুল ছাত্রী আত্মহত্যা করতে পারে বলে মনে হচ্ছে। রবিবার নুরির মরদেহ পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে। থানায় অপমুত্যু মামলা হয়েছে।

 

ব্রেকিং নিউজঃ