মধুপুরে শিশু ধর্ষণের পর হাসপাতালে ॥ ঘটনা ধামাচাপার চেষ্টা

77

স্টাফ রিপোর্টার ॥
টাঙ্গাইলের মধুপুরের গোলাবাড়ী ইউনিয়নের মাঝিরা গ্রামের খালপাড় এলাকায় ৭ বছরের শিশু ধর্ষণের শিকার হয়েছে। গত (২৪ জুন) সন্ধ্যায় মধুপুর উপজেলার মাঝিরা গ্রামের ভূট্টো মিয়ার লম্পট ছেলে রাসেল (১৮) একই বাড়ীর ২য় শ্রেণীর ছাত্রীকে চিপসের লোভ দেখিয়ে বাড়ির পাশে নির্জন স্থানে নিয়ে ধর্ষণ করে। শিশুটির ডাকচিৎকারে লোকজন ছুটে আসলে লম্পট রাসেল পালিয়ে যায়।
স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, ঘটনার পর আহত অবস্থায় শিশুটিকে চিকিৎসার জন্য প্রথমে মধুপুর হাসাপাতালে নিয়ে যাওয়া হয় তার অবস্থার অবনতি দেখে উন্নত চিকিৎসার জন্য টাঙ্গাইল জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করেন। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় আছেন বলে জানা যায়। এদিকে ঘটনার পরই রাসেলকে তার বাবা-মা পালিয়ে যেতে সহযোগিতা করেছে বলে এলাকা সুত্রে জানা যায়। ঘটনার পর হতে এলাকার নামধারী কতিপয় মাতাব্বররা ঘটনাটি ভিন্ন খাতে প্রবাহিত করার জন্য অপচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে বলে নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এলাকার অনেকেই জানান।
ঘটনাটি নিয়ে এলাকায় ব্যাপক চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হলেও স্থানীয় মাতাব্বরদের দাপটে এলাকার লোকজন চুপ করে আছেন। ঘটনা সূত্রে জানা যায়, শিশুটি অসুস্থ থাকার কারণে ধর্ষিতার পরিবারটি মামলার প্রস্তুতি নিতে বিলম্ব হচ্ছে।
এ ব্যাপারে স্থানীয় ইউপি সদস্য মোতালেব হোসেনের সাথে যোগাযোগ করলে ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে তিনি টিনিউজকে বলেন, মেয়েটি প্রতিবন্ধি। তাকে চিকিৎসার জন্য হাসপাতালে নেয়া হয়েছে। ঘটনার পর হতে ধর্ষণের শিকার শিশুটির পরিবার একই বাড়ি হওয়ায় স্থানীয় মাতাব্বরদের চাপে আতঙ্কে রয়েছে বলেও জানা যায়।

ব্রেকিং নিউজঃ