মধুপুরে দোখলা রেঞ্জের দেশী ৫৩ প্রজাতির বৃক্ষ রোপণ শুরু

61

মধুপুর সংবাদদাতা ॥
টাঙ্গাইলের মধুপুর শালবনের সমৃদ্ধির জন্য দোখলা রেঞ্জের ৮০ হেক্টর বনভূমিতে দেশী ৫৩ প্রজাতির গাছের চারা রোপণের কার্যক্রম শুরু করেছে বন বিভাগ। সুফল প্রজেক্টের আওতায় শালবনের পশু পাখির নিরাপদ খাদ্য, লাল মাটির শালবনের ঐতিহ্য ফিরিয়ে আনা, জীববৈচিত্র্য সংরক্ষন, দেশী প্রজাতি গাছের সমাহার ও পরিবেশের ভারসাম্য রক্ষার জন্য টেকসই এই মিশ্র বাগান করা হচ্ছে। এসব বৃক্ষ বেড়ে উঠলে শালবনের মানানসই পরিবেশসম্মত বৃক্ষের ফুলে ফলে ভরে উঠবে এ বন। ফিরে পাবে এ বনের হারানো ঐতিহ্য এমনটাই প্রত্যাশা সংশ্লিষ্টদের।
দোখলা রেঞ্জ সূত্রে জানা গেছে, সুফল প্রজেক্টের আওতায় দোখলা রেঞ্জের ৮০ হেক্টর বনভূমিতে প্রতি হেক্টরে ১৫শ’ করে মোট ১ লক্ষ ২০ হাজার দেশী ৫৩ প্রজাতির গাছের চারা রোপণ করা হবে। পশু খাদ্য, জীববৈচিত্র্য সংরক্ষন, বনের ঐতিহ্য ফিরিয়ে আনা, পরিবেশের ভারসাম্য রক্ষার জন্য টেকসই বন ব্যবস্থাপনার আওতায় গর্জন, জাম, চাপালিশ, ঢেউওয়া, লটকন, গাব, জামরুল, জলপাই, আমড়া, বেল, তেঁতুল, আমলকী, হরটকী, বহেরা, অর্জুন, বকুল, মহুয়া, নাগেশ্বর, নিম, কাটবাদাম, কাজু বাদাম, পেয়ারা, কানাইডিঙ্গা, জয়না, নেউর, চিকরাশি, আজুলী এবং ভেষজ গাছের মধ্যে তালমূল, তেজপাতা, সোনাপাতা, নাগদানা, জইফল, রক্ত চন্দনসহ দেশী ৫৩ প্রজাতির গাছের চারা গোবর ও মিশ্র সার দিয়ে রোপনের কার্যক্রম শুরু করেছে বন বিভাগের দোখলা রেঞ্জ। বন বিভাগের ব্যবস্থাপনায় এ রেঞ্জে নার্সারী করে এসব গাছের চারা উত্তোলন করা হয়। এসব তথ্য বন বিভাগ সূত্রে জানা গেছে।
এ ব্যাপারে দোখলা রেঞ্জ কর্মকর্তা আব্দুল আহাদ টিনিউজকে জানান, সুফল প্রজেক্টের আওতায় ষ্টেন্ড ইমপ্রভমেন্ট শাল বন এসোসিয়েট অর্থাৎ শালবনের বিদ্যমান অবস্থা ঠিক রেখে বনের মধ্যে লাল মাটির এ বনের পরিবেশ ও প্রকৃতির সাথে মিল রেখে দেশী ৫৩ প্রজাতির ফুল, ফল, ভেষজ ও পরিবেশ সম্মত টেকসই বাগানের লক্ষ্যে পশু খাদ্য ও পরিবেশের ভারসাম্য রক্ষার জন্য চারা রোপন করা হচ্ছে। এর ফলে শালবনের প্রকৃতি পরিবেশ, জীববৈচিত্র্য সংরক্ষন ও এ বনের ঐতিহ্য ফিরে আসবে। বন্যপ্রাণীরা তাদের নিরাপদ খাদ্য পাবে। এ রেঞ্জে ৮০ হেক্টর বনভূমিতে প্রায় ১ লক্ষ ২০ হাজার গাছের টেকসই মিশ্র সমৃদ্ধশীল বাগান করা হচ্ছে।

ব্রেকিং নিউজঃ