মধুপুরে কলা চুরির অভিযোগে কিশোরকে বেঁধে দিনভর নির্যাতন

179

Tangail_Pic-_27-10-15স্টাফ রিপোর্টারঃ
টাঙ্গাইলের মধুপুরে কলা চুরির অভিযোগে রেজাউল করিম (১২) নামের এক কিশোরকে খুঁটির সাথে বেঁধে রেখে দিনভর নানা নির্যাতনের অভিযোগ পাওয়া গেছে। মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ৯টার দিকে উপজেলার জলছত্র বাজারে দুই ছড়ি কলা বিক্রি করতে এসে ওই কিশোর চুরির দায়ে ধরা পড়ে এ নির্যাতনের শিকার হয়েছে। কিশোর রেজাউল করিম বনাঞ্চলের ঝাটারবাইদ এলাকার গরু ব্যবসায়ী আলতাব হোসেনের ছেলে।
প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, কিশোর রেজাউল দুইদিন আগে একই এলাকার জনৈক হারাধন ও অপর এক ব্যক্তির বাগান থেকে দুই ছড়ি কলা চুরি করে মঙ্গলবার সকালে বাজারে বিক্রি করতে এসে ধরা পড়ে। ধরা পড়ার পর তার গলায় জুতার মালা পড়িয়ে সারা বাজার ঘুরিয়ে বাজারে অগ্নিসেনা ক্লাবের সামনে একটি খুঁটিতে পিটমুড়া করে বেঁধে মারপিট করা হয়। বিকেল সাড়ে তিনটা পর্যন্ত ওখানে বেঁধে রেখে ক্ষণে ক্ষণে তার উপর নির্যাতন চালায় ক্লাবের সদস্য শাহাদৎ, রেজাউলসহ অনেকে। পরে বিকেল ৪টার দিকে ওই ক্লাবে ঢুকিয়ে কাঁচের পেপসি’র বোতল দিয়ে হাতে-পায়েসহ শরীরের বিভিন্ন জায়গায় আঘাত করা হয়। ‘আবারও  সাইজ’ করার লক্ষে তালাবদ্ধ করে নির্যাতনকারীরা নির্যাতনে বিরতি দিয়ে পাশেই ফুটবল মাঠে ফুটবল খেলা উপভোগ করতে যায়। বাজার থেকে প্রায় দুইশ’ গজ দূরেই অরণখোলা পুলিশ ফাঁড়ি। সেখানে না দিয়ে তাদের এ নির্যাতনের বিষয়টি অনেকেরে মনে ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে।
এদিকে অগ্নিসেনা ক্লাবের সাধারণ সম্পাদক আব্দুর রহিম নির্যাতনের বিষয়টি অস্বীকার করেছেন। মধুপুর উপজেলার অরণখোলা পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ এসআই আমিনুল ইসলাম জানান, কাজের জন্য দূরে ছিলাম। খবর শুনেই ঘটনাস্থলে এসেছি। স্থানীয় জনপ্রতিনিধিদের উপস্থিতিতে মুচলিকা রেখে কিশোরটিকে অভিভাবকের হাতে তুলে দেয়ার প্রক্রিয়া করা হচ্ছে।
এ ব্যাপারে মঙ্গলবার সন্ধ্যায় মধুপুর থানার (ওসি) সফিকুল ইসলামের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি এ বিষয়ে কোন কিছু জানেন বলে জানান। তবে যোগাযোগ করে নির্যাতনের বিষয়ে কোন কিছু জানতে পারলে এ বিষয়ে ব্যবস্থা নেয়া হবে তিনি সাংবাদিকদের জানান।

ব্রেকিং নিউজঃ