মধুপুরে ইউপি নির্বাচন আওয়ামী লীগের ৫৮ নেতাকর্মীকে বহিষ্কার

130

স্টাফ রিপোর্টার ॥
টাঙ্গাইলের মধুপুরের তিন ইউনিয়নে ৩য় ধাপের ইউপি নির্বাচনে নৌকার বিরুদ্ধে কাজ করায় আওয়ামী লীগ, যুবলীগ ও ছাত্রলীগের ৫৮ নেতাকর্মীকে বহিস্কার করা হয়েছে। দলীয় শৃঙ্খলা ভঙ্গের অভিযোগে তাদের বহিষ্কার করা হয়েছে বলে টিনিউজকে নিশ্চিত করেছেন মধুপুর উপজেলা আওয়ামী লীগের প্রচার সম্পাদক মহসিনুল কবির।
জানা যায়, মধুপুর উপজেলার আলোকদিয়া, গোলাবাড়ী ও মির্জাবড়ী ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনের ভোট গ্রহণ হবে আগামী (২৮ নভেম্বর)। এ নির্বাচনে মির্জাবাড়ী ইউনিয়ন পরিষদে প্রতিদ্বন্ধিতা করার জন্য আওয়ামী লীগের মনোনয়ন বোর্ড উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও সাবেক চেয়ারম্যান সাদিকুল ইসলামকে দলীয় মনোনয়ন দেয়। দলীয় এই সিদ্ধান্ত অমান্য করে মির্জাবাড়ী ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের স্ধাারণ সম্পাদক আজহারুল ইসলাম আজাহার মাষ্টার বিদ্রোহী প্রার্থী হিসাবে (আনারস) নির্বাচন করায় মধুপুর উপজেলা আওয়ামী লীগ তাকে বহিষ্কার করে। একই সাথে বিদ্রোহী প্রার্থী আজাহারুল ইসলামের পক্ষে নির্বাচনী কাজ করার দায়ে দলের বিভিন্ন পর্যায়ের ৪৭ জন নেতা-কর্মীকেউ বহিষ্কার করা হয়েছে।
এরমধ্যে মির্জাবাড়ী ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আলমগীর হোসেন সরকার, শিক্ষা ও মানব সম্পদ বিষয়ক সম্পাদক হায়দার আলী, ত্রাণ ও সমাজকল্যাণ বিষয়ক সম্পাদক আকেছ আলী খানসহ ১০ জনকে বহিষ্কার করা হয়। ২ নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের ২ জন সহ-সভাপতি তাহের আলী ও আশরাফ আলী, সাধারণ সম্পাদক ফরমান হোসেন ফরহাদসহ ৫ জন, ৩ নং ওয়ার্ডের ৪ জন সহ-সভাপতি আজহার আলী, আব্দুল মোতালেব, হিরা মিয়া ও শাহজাহান আলী সাজুসহ ৬ জন, ৪ নং ওয়ার্ডে ২ জন সহ-সভাপতি মোফাজ্জল হোসেন, মোহাম্মদ সানিসহ ৫ জন, ৫ নং ওয়ার্ডে সভাপতি জোয়াহের আলী, সহ-সভাপতি মকবুল হোসেন ও তুলা মিয়া, সাধারণ সম্পাদক আকেছ আলী খানসহ ১০ জন, ৬ নং ওয়ার্ডের সহ-সভাপতি আব্দুল জলিল, ৭ নং ওয়ার্ডের সভাপতি সাখাওয়াত হোসেন, সাংগঠনিক সম্পাদক বাদল মিয়া ও কোষাধ্যক্ষ আবু তাহেরসহ ৩ জন, ৮ নং ওয়ার্ডের সহ-সভাপতি আব্দুল গনি মিয়া ও ৯ নং ওয়ার্ডের বন ও পরিবেশ বিষয়ক সম্পাদক বাদশা মিয়া, কৃষি বিষয়ক সম্পাদক সাইফুল ইসলামসহ ৩ জনকে বহিষ্কার করা হয়। এছাড়া মির্জাবাড়ী ইউনিয়ন যুবলীগের আহবায়ক শাহজাহান আলী সাজু ও যুগ্ম আহবায়ক জামাল উদ্দিন ভূইয়া এবং কৃষকলীগের সভাপতি আইয়ুব আলীকে বহিষ্কার করা হয়েছে।
অপরদিকে, আলোকদিয়া ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে বর্তমান চেয়ারম্যান আবু সাইদ তালুকদার দুলাল আওয়ামী লীগের মনোনয়ন পেয়েছেন। এর বিরুদ্ধে বিদ্রোহী প্রার্থী হিসাবে নির্বাচন করছেন উপজেলা যুবলীগের সাবেক আহবায়ক আবু সাঈদ খান সিদ্দিক ও মমিনুল হক মুকুল। দলীয় সিদ্ধান্তের বাইরে বিদ্রোহী প্রার্থী হিসাবে নির্বাচন করায় সাবেক যুবলীগ নেতা আবু সাইদ খান সিদ্দিককে স্থায়ীভাবে বহিষ্কার করা হয়।
একই সাথে আলোকদিয়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক হোসাইন আহমাদ, ৩ নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ইকবাল হোসেন, ইউনিয়ন যুবলীগের সভাপতি বদিউজ্জামান বাদল, সহ-সভাপতি আবুল কালাম আজাদ, মধুপুর উপজেলা ছাত্রলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক খলিলুর রহমান, ইউনিয়ন স্বেচ্ছাসেবক লীগের সহ-সভাপতি আমিনুল ইসলাম বাদল, সাধারণ সম্পাদক ময়েন উদ্দিন, ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক জিয়াউল হক রুবেল, ইউনিয়ন ছাত্রলীগের শামীম হোসেন সাগরসহ ১১ জনকে বহিষ্কার করা হয়েছে।
টাঙ্গাইল জেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক জামিলুর রহমান মিরন, উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি খন্দকার শফিউদ্দিন মনি ও সাধারণ সম্পাদক ছরোয়ার আলম খান আবু বহিষ্কারাদেশে স্বাক্ষর করেছেন। ছাত্রলীগ নেতাকর্মীদের বহিষ্কারাদেশে মধুপুর উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি মশিউর রহমান মিথুন এবং স্বেচ্ছাসেবক লীগের বহিষ্কারাদেশে সংগঠনের উপজেলা শাখার সভাপতি ফরহাদ হোসেন পলাশ স্বাক্ষর করেছেন।

 

 

 

ব্রেকিং নিউজঃ