ভ্যাকসিনের জন্য চীনের পায়ে ধরে বেড়াচ্ছে সরকার- ডাঃ জাফরউল্লাহ চৌধুরী

114

হাসান সিকদার ॥
ভাসানী অনুসারী পরিষদের চেয়ারম্যান ও গণস্বাস্থ্যের ট্রাস্টি ডা. জাফরুল্লাহ্ চৌধুরী বলেছেন, মানবতার কারনে হলেও বেগম খালেদা জিয়াকে চিকিৎসা করাতে বিদেশে যেতে দেয়া উচিত। তাকে নিয়ে সরকারের এমন চালাচালি করা মোটেও উচিত হচ্ছে না। উনার যে অবস্থা এদেশে উনার চিকিৎসা হচ্ছে না। লাঞ্চে পানি আশাটা খুবই খারাপ লক্ষ্মণ। যেকোন সময় যেকোন কিছু হতে পারে এটা দেশের জন্য, জাতির জন্য একটা বিপদজনক সমস্যার দিকে নিয়ে যাচ্ছে। যখন আইন মন্ত্রনালয়ে চিঠি পাঠিয়েছে তখনইতো করে দিতে পারতো সরকার। এটাতো আধা ঘণ্টার কাজ।
রবিবার (৯ মে) দুপুরে ভাসানী অনুসারী পরিষদের আয়োজনে টাঙ্গাইল মওলানা ভাসানীর মাজার জিয়ারত করে অসহায় দুস্থদের মাঝে ঈদুল ফিতরে শতাধিক উপহার সামগ্রী বিতরণকালে তিনি এসব কথা বলেন।
তিনি আরও বলেন, সরকারের ভূল সিদ্ধান্ত আমলাদের দ্বারা দেশ নিয়ন্ত্রিত করছেন। সামনে ঈদে মানুষ বাড়ি যাবে তার কোন ব্যবস্থা নেই। গত কয়েকদিন যে ভাবে মানুষ চলছে তাতে রোগ আরোও বাড়াবে। বড় লোকেরা প্লেনে, নিজের গাড়িতে করে বাড়ি গিয়ে ঈদ করবে। কিন্তু সাধারণ মানুষ বছরে একটা দিন গ্রামের বাড়িতে ঈদ করতে পারবে না এটা হতে পারে না। রোগ বাড়তেই পারে, পরিষ্কার ভাবে বলা যেত যে যারা বাড়ি যাবেন তারা অনুগ্রহ করে একদিন আগে করোনা পরীক্ষা করে নেন। এটা অনেক সহজ পথ ছিল। সরকার রোগের মৃত্যু কম দেখানোর জন্য কম পরীক্ষা করেন। আজকে এই সময়ে দেশকে যারা চালাচ্ছেন তাদেরকে ধমক দিয়ে কথা বলার একটি মাত্র লোক ছিলেন মওলানা ভাসানী। ওনাকে স্বরণ করলেই ওনার আদর্শ অনুসরণ করলেই এই জাতি জীবিত থাকবে। এক বছর আগে যখন চীন বাংলাদেশে তাদের ভ্যাকসিনের ট্রায়াল করতে অনুমোদন চেয়েছিল তখন আমি বলেছিলাম আধা ঘন্টার মধ্যে অনুমোদন দিয়ে দেন। কিন্তু তখন সরকার দেয় নাই। এখন ভ্যাকসিনের জন্য চীনের পায়ে ধরে বেড়াচ্ছে সরকার। ঈদের সময় মানুষের সমস্যা করা যাবে না। সরকার মানুষের চলাচলে কষ্ট বাড়িয়েছে, তিনগুন ব্যয় বাড়িয়েছে। এই সরকার যেহেতু জনগনের প্রতিনিধিত্ব করেনা। দেশ যেহেতু আমলা দ্বারা পরিচালিত হয়। আর আমলারা হল সুখের পায়রা। ইসলামাবাদের শাসন আর আমলাদের শাসনের মধ্যে কোন পার্থক্য নেই। সরকারের কাছে ৪৫ বিলিয়ন ডলার উদ্বৃত্ত রয়েছে। সেই টাকা সরকার এই করোনার সময় অসহায় গরিব মানুষকে এক মাসের রেশন আকারে খাদ্য সহযোগিতায় ব্যয় করুন। আর আধা বিলিয়ন টাকা গবেষণার কাজে ব্যয় করলে টিকার পেছেনে আমাদের আর ছুটতে হবে না। আমারই টিকা তৈরি করতে পারবো।
এ সময় তার সাথে উপস্থিত ছিলেন ভাসানী অনুসারী পরিষদের মহাসচিব শেখ রফিকুল ইসলাম বাবলু, প্রেসিডিয়াম মেম্বার নঈম জাহাঙ্গীর মিন্টু, ফরিদ উদ্দিনসহ অন্যান্য নেতৃবৃন্দ।

ব্রেকিং নিউজঃ