ভূমিকম্পে ফাটল দেখা দেয়ায় মাওলানা ভাসানী বিশ্ববিদ্যালয় বন্ধ ঘোষণা

80

36985স্টাফ রিপোর্টারঃ
সাম্প্রতিক ভুমিকম্পে টাঙ্গাইলের মাওলানা ভাসানী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ব বিদ্যালয়ের মেয়েদের হল শহীদ জাহানার হলের বেশ কয়েক জায়গায় ফাটল দেখা দিয়েছে। এতে করে ছাত্রীদের মাঝে আতংক বিরাজ করছে। ছাত্রীদের আতংকের কারনে বিশ্ব বিদ্যালয় কর্র্তৃপক্ষ আগামী ৯ জানুয়ারী থেকে ১৩ জানুয়ারী বন্ধ ঘোষণা করেছে। বুয়েটের পর্যবেক্ষক দলের রিপোর্টের উপর ভিত্তি করে পরবর্তী পদক্ষেপ নেয়া হবে বলে জানিয়েছে কর্তৃপক্ষ।
মজলুম জননেতা মওলানা ভাসানীর নামানুসারে টাঙ্গাইলের সন্তোষে ১৯৯৯ প্রতিষ্ঠা করা হয় মাওলানা ভাসানী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ব বিদ্যালয়। প্রতিষ্ঠার পর থেকেই শিক্ষা ক্ষেত্রে গুরুত্বপূর্ণ ভুমিকা পালন করে আসছে এ বিশ্ব বিদ্যালয়। বর্তমানে বিশ্ব বিদ্যালয়ে প্রায় পাঁচ হাজার ছাত্র-ছাত্রী পড়া লেখা করছে। দূর দূরান্তের ছাত্র ছাত্রীদের থাকার সুবিদার্থে বর্তমানে পাঁচটি হল রয়েছে। এদর মধ্যে ছেলেদের তিনটি ও মেয়েদের দুটি হল। সম্প্রতী হওয়া ভূমিকম্পে বিশ্ববিদ্যালয়ের মেয়েদের আবাসিক ভবন শহীদ জাহানারা ইমাম হলে ফাটল দেখা দেয়। এরফলে আতঙ্কিত হয়ে পড়ে আবাসিক ছাত্রীরা। পরে বৃহস্পতিবার সন্ধায় এক জরুরি সভায় এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়।
শহীদ জাহানার হলের আবাসিক ছাত্রীরা টিনিউজবিডি.কমকে বলেন ভুমিকম্পের পর তারা তাদের হলের বেশ কয়েক জায়গায় ফাটল দেখা দেয় এতে তার অনেক ভয় পেয়েছে। ফাটল দেখার পরপরই তারা হল ত্যাগ করেছে। কর্তৃপক্ষ বিশ্ববিদ্যালয বন্ধ ঘোষনা করায় শুক্রবার দুপুরের মধ্যেই সকল শিক্ষার্থী ক্যাম্পাস ত্যাগ করে নিজ নিজ বাড়িতে চলে গেছে।
শহীদ জাহানার হলের আবাসিক শিক্ষক রেশমা পারভীন টিনিউজবিডি.কমকে বলেন, ভুমিকম্পে ফাটল গুলো বেশ বড় আকার ধারণ করেছে। তবে ভিম ও কলামে কোন ফাটল নেই তাই আতংকের কিছু নেই। তবে ছাত্রীদের নিরাপত্তার স্বার্থে হল খালি করা হয়েছে। খুব শীঘ্রই বুয়েটের বিশেষজ্ঞ দল এসে ভবনের অবস্থা পরীক্ষা করবে। তাদের রিপোর্টের উপর পরবর্তী সিদ্ধান্ত গ্রহন করা হবে।

ব্রেকিং নিউজঃ