ভূঞাপুর উপজেলা চেয়ারম্যানের জানাজা শেষে দাফন সম্পন্ন

95

স্টাফ রিপোর্টার ॥
রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় চির নিদ্রায় শায়িত হলেন টাঙ্গাইলের ভূঞাপুর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল হালিম এডভোকেট। করোনায় আক্রান্ত হয়ে চিকিৎসাধীন অবস্থায় শুক্রবার (৩০ জুলাই) সকাল সাড়ে ১০ টায় ঢাকার শ্যামলী স্প্যাশালাইসড হাসপাতালে তিনি মারা যান। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৭০ বছর।
পরিবার সূত্রে জানা যায়, গত (৪ জুলাই) চেয়ারম্যান আব্দুল হালিম তার স্ত্রী নারগিস আক্তারসহ স্ব-পরিবার করোনা আক্রান্ত হন। সেসময় রাজধানীর একটি হাসপাতালে চিকিৎসা নেয়া শুরু করেন। এর আগে তিনি তার স্ত্রীসহ গত (২০ ফেব্রুয়ারি) ও (২০ এপ্রিল) ভূঞাপুর স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স থেকে করোনার ২ ডোজ টিকা গ্রহণ করেন। তিনি মহান মুক্তিযুদ্ধে অংশ নিয়ে ছিলেন। পরিবারিকভাবে তিনি আওয়ামী লীগের রাজনীতি করতেন। তিনি দীর্ঘদিন ভূঞাপুর উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ছিলেন। আওয়ামী লীগের মনোনয়নে তিনি পরপর দুইবার উপজেলা চেয়ারম্যান নির্বাচিত হন। মৃত্যুকালে তিনি স্ত্রী, এক ছেলে ও এক মেয়েসহ অসংখ্য গুনগ্রাহী রেখে যান। তার মৃত্যুর সংবাদে এলাকায় শোকের ছায়া নেমে আসে। শুক্রবার (৩০ জুলাই) বাদ আসর ভূঞাপুর সরকারি পাইলট উচ্চ বিদ্যালয় মাঠ ও বাদ মাগরিব তার নিজ গ্রাম সাফলকুড়ায় দ্বিতীয় জানাজা শেষে রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় তাকে দাফন করা হয়।
জানাজায় উপস্থিত ছিলেন স্থানীয় সংসদ সদস্য তানভীর হাসান ছোট মনির, পুলিশের অতিরিক্ত আইজিপি খন্দকার গোলাম ফারুক, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ইশরাত জাহান, পৌরসভার মেয়র মাসুদুল হক মাসুদ, টাঙ্গাইলের বিভিন্ন উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যানবৃন্দ, বীর মুক্তিযোদ্ধাবৃন্দ, জেলা ও উপজেলা আওয়ামী লীগের নেতৃবৃন্দ এবং বিভিন্ন সামাজিক, সাংস্কৃতিক অঙ্গসংগঠনের নেতৃবৃন্দ। তাঁর মৃত্যুতে শোক জানিয়েছেন কৃষি মন্ত্রী ড. আব্দুর রাজ্জাকসহ আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দ।

ব্রেকিং নিউজঃ