ভূঞাপুরে হতদরিদ্রদের ভিজিএফ’র চালে বড় বড় পাথর ॥ ক্ষুব্ধ উপকারভোগীরা

79

স্টাফ রিপোর্টার ॥
টাঙ্গাইলের ভূঞাপুরে হতদরিদ্রদের মাঝে ভিজিএফ কর্মসূচীর আওতায় বিতরণ করা দশ কেজি চালে বড় বড় পাথর পাওয়া গেছে। এতে চাল নিতে আসা উপকাভোগীরা ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন।
মঙ্গলবার (৫ জুলাই) ভূঞাপুর পৌরসভায় ভিজিএফ কর্মসূচীর চাল বিতরণের সময় বেশ কিছু বস্তাতে পাথর পাওয়া যায়। পরে সংশ্লিষ্ট কর্র্তৃপক্ষকে অবহিত করলে পাথরযুক্ত চালের বস্তাগুলো পরিবর্তণের আশ্বাস দেয়া হয়। এছাড়াও পোকা, দূর্গন্ধ ও নিম্নমানের চাল বলে অভিযোগ করেছেন ভুক্তভোগীরা।

ভূঞাপুর উপজেলা গোডাউন কর্মকর্তা (ওসিএলএসডি) আব্দুল হালিম টিনিউজকে বলেন, চালে পাথর পাওয়ার পরই বস্তাগুলো পরিবর্তনের জন্য উদ্যোগ নেয়া হয়েছে। তবে চালে এমন পাথর থাকতেই পারে। চাল যে চাতালগুলোতে শুকানো হয়, চাতালের পাথরগুলোই উঠে চালে মিশেছে।

ভূঞাপুর উপজেলা খাদ্য পরিদর্শক কাজী হামিদুল হক টিনিউজকে বলেন, হতদরিদ্রদের মাঝে বিতরণের জন্য ভিজিএফ কর্মসূচীর আওয়তায় ৬টি ইউনিয়নে ১০২ মেট্রিকটন এবং পৌরসভায় ৩০ মেট্রিকটন চাল বরাদ্দ দেয়া হয়েছে। এই চালের বস্তাগুলো গত বছর গোডাউনে মজুদ করা হয়েছিল। এই মৌসুমটায় চালে পোকা ধরে। পোকা দমনে ওষুধ দেয়া হচ্ছে।

 

মঙ্গলবার (৫ জুলাই) পৌরসভায় চালগুলো বিতরণের সময় বেশ কিছু বস্তাতে পাথর পাওয়া গেছে। সেগুলো পরিবর্তণ করে দেয়া হবে।
ভূঞাপুর পৌরসভার মেয়র বীরমুক্তিযোদ্ধা মাসুদুল হক মাসুদ টিনিউজকে বলেন, চাল বিতরণের সময় বেশ কিছু বস্তাতে পাথর পাওয়া যায়। পরে সংশ্লিষ্টদের জানানো হয়েছে। বস্তাগুলো পরিবর্তন করে দেয়ার কথা জানিয়েছেন কর্তৃপক্ষ।

এ বিষয়ে ভূঞাপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ইশরাত জাহান টিনিউজকে জানান, পাথরযুক্ত চালের বস্তাগুলোতে পরিবর্তন করে দেয়ার জন্য খাদ্য পরিদর্শককে জানানো হয়েছে। কেন চালে পাথর পাওয়া গেলে সেটি খতিয়ে দেখে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।

 

ব্রেকিং নিউজঃ