ভূঞাপুরে পুলিশের বিরুদ্ধে আসামী গ্রেফতারে গড়িমশির অভিযোগ

125

1207স্টাফ রিপোর্টারঃ

টাঙ্গাইলের ভূঞাপুর উপজেলার নিকরাইল গ্রামের আব্দুর রহিম তালুকদারের বাড়ি ঢুকে তাকে শ্বাসরোধ ও হত্যার উদ্দেশ্যে গুলি করার ঘটনায় দুইজনের নামসহ অজ্ঞাত আরো ৫জনের বিরুদ্ধে থানায় মামলা দায়েরের দেড় মাস অতিবাহিত হলেও এখন পর্যন্ত কাউকে আটক করতে পারেনি পুলিশ। আসামীরা প্রকাশ্যে ঘুরে বেড়ালেও পুলিশের বিরুদ্ধে তাদের ধরতে গড়িমশির অভিযোগ উঠেছে। এদিকে, পুলিশের বিরুদ্ধে অভিযোগ এনে আব্দুর রহিম তালুকদার জেলা পুলিশ সুপারের কাছে ঘটনাটি সুষ্ঠ তদন্তের জন্য গোয়েন্দা সংস্থার সাহায্যে চেয়ে গত ৩ অক্টোবর আবেদন করেছেন।  মামলার বিবরণে জানা যায়, উপজেলার নিকরাইল গ্রামের আব্দুর রহিম তালুকদারের বাড়িতে গত ৯ সেপ্টেম্বর গভীর রাতে ফজলুল হক ভূইয়া ও আসলামসহ অজ্ঞাত ৪/৫জন সন্ত্রাসী মুখোশ পড়ে ঘরে ঢুকে শ্বাসরোধ করে হত্যার চেষ্টা করে। এ সময় রহিমের শাশুড়ির আত্মচিৎকারে আশপাশের লোকজন ছুটে আসলে আসামীরা দুই রাউন্ড গুলি করে পালিয়ে যায়। পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে ব্যবহৃত একটি গুলির খোসা, গুলি, চাপাতি ও রেঞ্জ উদ্ধার করে। হত্যা চেষ্টার ঘটনা দেড় মাস অতিবাহিত হলেও এখন পর্যন্ত পুলিশ কাউকে গ্রেফতার করেনি বলে অভিযোগ উঠেছে। অন্যদিকে ঘটনার সাথে জড়িত আসামীরা বিভিন্নভাবে আব্দুর রহিম তালুকদারসহ স্বাক্ষীদের হুমকি দিয়ে যাচ্ছে।
আব্দুর রহিম তালুকদার জানান, পূর্ব শক্রুতার জের ধরে আসামীরা আমাকে বিভিন্ন সময় হত্যার হুমকি দিয়ে আসছিল। গত ৯ সেপ্টেম্বর রাতে আসামীরা বাড়িতে ঢুকে শ্বাসরোধ করে হত্যা করতে চেয়েছিল। শ্বাশুড়ির চিৎকারে পাশের বাড়ির লোকজন এগিয়ে আসলে তারা গুলি করে পালিয়ে যায়। প্রথম দিকে পুলিশ মামলা নিতে অস্বীকার করে। এক পর্যায়ে পুলিশ মামলা নিলেও আসামী ধরতে গড়িমশি করছে। আসামীরা আমাকেসহ স্বাক্ষীদের নানাভাবে হুমকি দিয়ে আসছে। ফলে নিরাপত্তা হীনতায় ভুগছি।
মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা ভূঞাপুর থানা এসআই ওয়াদুদ আলম জানান, মামলাটি তদন্তাধীন রয়েছে। তদন্তে ঘটনার সত্যতা পাওয়া গেলে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

ব্রেকিং নিউজঃ