ভূঞাপুরে ছাত্রলীগ নেতার ধর্ষণের মামলা তুলে না নেয়ায় নারীকে যৌন হয়রানি ॥ আটক ২

537

স্টাফ রিপোর্টার ॥
টাঙ্গাইলের ভূঞাপুরে স্বামীকে হত্যার হুমকি দেওয়াসহ ও ধর্ষণের মামলা তুলে নেওয়ার জন্য রাস্তা অবরোধ করে যৌন হয়রানি করার অভিযোগে ইবরাহীম খাঁ সরকারি কলেজ শাখা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতিসহ দুইজনকে আটক করেছে ভূঞাপুর থানা পুলিশ। আটককৃত দুইজন হলেন- উপজেলা পৌর এলাকার ছাব্বিশা গ্রামের কামরুজ্জামান মন্ডলের ছেলে আসিফুজ্জামান হৃদয় মন্ডল (২৭) ও বীরহাটি গ্রামের মিন্টু সরকারের ছেলে রাব্বী সরকার (২১)।

 

গত (১৩ জুন) ভুক্তভোগী নারী অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে রবিবার (১৯ জুন) রাতে অভিযান চালিয়ে পৌর শহরের বাসস্ট্যান্ড চত্বরের মুক্তিযোদ্ধা কমপ্লেক্স ভবনের সামনে তাদেরকে আটক করা হয়। সোমবার (২০ জুন) দুপুরে ভূঞাপুর থানা অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মুহাম্মদ ফরিদুল ইসলাম এ বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

এ ব্যাপারে থানার (ওসি) মুহাম্মদ ফরিদুল ইসলাম টিনিউজকে জানান, বিগত ২০২০ সালে এক নারী অভিযুক্ত আসামি হৃদয়ের বিরুদ্ধে ধর্ষণের মামলা করেন। সে মামলায় কয়েক মাস কারাভোগের পর জামিনে আসেন আসামি হৃদয়। এরপর থেকেই নানা সময়ে বাদী নারীকে তার বিরুদ্ধে ধষর্ণের মামলা তুলে নেয়ার জন্য চাপ সৃষ্টি করে আসছিল বলে অভিযোগ করেন ওই নারী। তিনি জানান, এরই ধারাবাহিকতায় গত (১৩ জুন) বিকালে কলেজের পুকুর পাড় দিয়ে ওই নারী বাড়ি যাচ্ছিল। সে সময় তাকে রাস্তায় একা পেয়ে ধর্ষণের মামলা তুলে নেয়ার জন্য অবরোধ করে যৌন হয়রানি করে। গত রবিবার (১৯ জুন) থানায় অভিযোগ করেন তিনি। পরে অভিযোগের প্রেক্ষিতে হৃদয় তার বন্ধু রাব্বীকে আটক করা হয়। সোমবার (২০ জুন) দুপুরে তাদেরকে টাঙ্গাইল আদালতে পাঠানো হয়েছে।

বিগত ২০২০ সালে কলেজ ছাত্রলীগের সভাপতি হৃদয় ওই নারীকে নানা সময়ে কু-প্রস্তাব দিতো। তার প্রস্তাবে রাজি না হলে রাজনৈতিক প্রভাব খাটিয়ে ওই ছাত্রীকে কলেজে আসা-যাওয়া বন্ধ করে দেয় এবং তার স্বামীকে হত্যা করবে বলে হুমকি দিয়ে বিভিন্ন সময়ে নিয়মিত ধর্ষণ করতো। এতে ওই নারী মানসিকভাবে বিপর্যস্ত হয়ে পড়েন।

এক পর্যায়ে ধর্ষণের কথা প্রকাশ করে চিরকুট লিখে সে আত্মহত্যার সিদ্ধান্ত নেন। স্বামী চিরকুটটি দেখে ফেলায় তার কাছে ঘটনা খুলে বলেন। এরপর ওই ভুক্তভোগী নারী কলেজ শাখা ছাত্রলীগের প্রাক্তণ সভাপতি হৃদয়ের বিরুদ্ধে অপহরণ ও ধর্ষণের অভিযোগে থানায় মামলা দায়ের করেন। পরে শুক্রবার (৩ জানুয়ারি) হৃদয়কে গ্রেপ্তার করে। শনিবার (৪ জানুয়ারি) টাঙ্গাইল আদালতে প্রেরণ করে থানা পুলিশ।

 

 

ব্রেকিং নিউজঃ