বাসাইলে ৬ষ্ঠ শ্রেণীর ছাত্রীকে ধর্ষণের চেষ্টা

116

news_imgবাসাইল সংবাদদাতাঃ
টাঙ্গাইলের বাসাইলে মুজিব হাবীব ইসলামিয়া দাখিল মাদ্রাসার ৬ষ্ঠ শ্রেণীর ছাত্রীকে (১৩) ধর্ষণের চেষ্টা করেছে হৃদয় নামে এক বখাটে কিশোর। বুধবার সন্ধ্যায় এ ঘটনাটি ঘটে। হৃদয় (১৯) বাসাইল উত্তর (মধ্য) পাড়ার কাদের মেলেটারীর ছেলে।
জানা যায়, বাসাইল উত্তরপাড়ার আমিনুল মিয়ার মেয়ে ও একই এলাকার কাদের মেলেটারীর ছেলে হৃদয়ের (১৯) সাথে প্রেমের সম্পর্কের সুবাধে দু’জনে বিজয় দিবসের দিন সন্ধ্যায় মেয়েটিকে বিয়ের প্রলোভন দিয়ে জোরপূর্বক ধর্ষণ করার চেষ্টা করে। মেয়েটির আত্মচিৎকারে স্থানীয় লোকজন এগিয়ে এলে ধর্ষক পালিয়ে যায়। এ ঘটনা তাৎক্ষনিক এলাকায় জানাজানি হলে মেয়েটি (প্রেমিক) ধর্ষকের বাড়ীতে অবস্থান নেয়। পরে ছেলেটির অভিভাবক তাকে মারধর করে বাড়ী থেকে বের করে দেয়ার চেষ্টা করে। তাৎক্ষনিক বাসাইল থানা পুলিশ খবর পেয়ে মেয়েটিকে উদ্ধার করে স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতা একে আজাদ খানশুরের বাড়ীতে রেখে আসে। ছেলে পক্ষ প্রভাবশালী হওয়ায় স্থানীয় নেতাদের নেতাদের টাকা দিয়ে ঘটনাটি ধামাচাপা দেয়ার জন্য চেষ্টা চালাচ্ছে বলেও জানা গেছে।
এদিকে বাসাইল উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) মোহাম্মদ নাজমুল আহসান ও উপজেলা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা মাহমুদা খাতুন মেয়েটিকে স্থানীয় কাউন্সিলর হাফিজুর রহমান ভূইয়ার জিম্বায় মেয়েটির বাড়ীতে রেখে আসে। পরে বৃহস্পতিবার রাতে মেয়েটির বাবা বাদী হয়ে বাসাইল থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন আইনে মামলা দায়ের করে। ছাত্রীর মা রুমা বেগম বলেন, জানা ছিল না ছেলেটির সাথে আমার মেয়ের সম্পর্ক ছিল। প্রেমের সুবাধে হৃদয় আমার মেয়েকে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে জোরপূর্বক ধর্ষণ করার চেষ্টা করে। সরেজমিনে হৃদয়দের বাড়ীতে গেলে তাদের সব ঘর তালাবদ্ধ দেখা যায়। এ ব্যাপারে মামলার আইও বাসাইল থানার (এসআই) আমিনুল ইসলাম জানান, আসামী পলাতক রয়েছে, তাকে গ্রেফতারের জোর চেষ্টা চলছে।

ব্রেকিং নিউজঃ