বন্ধুর বিয়েতে যাবার পথে লাশ হলো দাইন্যা গ্রামের শাকিল

211

স্টাফ রিপোর্টার ॥
ঢাকা থেকে ছেড়ে যাওয়া শরীয়তপুরগামী স্বর্ণদ্বীপ প্লাস লঞ্চে নিহত তিনযাত্রীর একজন টাঙ্গাইলের শাকিল আহমেদ শান্ত (২০)। নিহত শাকিল টাঙ্গাইল সদর উপজেলার দাইন্যা ইউনিয়নের ঘোষ পাড়ার মুদি দোকানী নাজিম উদ্দিনের ছেলে। রোববার (২৩ অক্টোবর) সকালে মারা যাবার খবরটি শাকিলের বাড়িতে পৌঁছালে সেখানে হৃদয় বিদারক দৃশ্যের সৃষ্টি হয়।
পরে নিহত শাকিলের বড় ভাই সরোয়ার হোসেন এবং স্থানীয় ইউপি সদস্য লিটন মিয়াসহ কয়েকজন নিকট আত্মীয় টাঙ্গাইল থেকে শরিয়তপুর যান লাশ আনার জন্য।




নিহত শাকিলের বড় ভাই সরোয়ার হোসেন টিনিউজকে বলেন, আমরা তিন ভাইবোনের মধ্যে সবার ছোট শাকিল আহমেদ শান্ত। সে গাজীপুরের একটি গার্মেন্টস কারাখানায় চাকরি করতো। যতটুকু জানতে পেরেছি শাকিলের বন্ধু গোসাইর হাটের তানজিলের বিয়ের অনুষ্ঠানে যাবার জন্য শনিবার (২২ অক্টোবর) রাতে রওনা হয়। তানজিল কয়েকবার আমাদের বাড়িতেও এসেছিল। ওরা একসাথে চাকরি করতো। রোববার (২৩ অক্টোবর) সকালে আমরা দুর্ঘটনার খবর জানতে পাই।

কাপড় ব্যবসায়ী সরোয়ার হোসেন আরো বলেন, আমার বোনটি প্রতিবন্ধী। সবার আদরের ছোট ভাই শাকিলের এই মর্মান্তিক মৃত্যু মেনে নিতে পারছি না। এমন দুর্ভাগ্য যেনো আর কোন পরিবারে না আসে। আমরা আইনীপ্রক্রিয়া শেষ করে লাশ বাড়িতে নিয়ে স্থানীয় কবরস্থানে দাফন করবো।




টাঙ্গাইল সদর উপজেলার দাইন্যা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আফজাল হোসেন টিনিউজকে মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, রোববার (২৩ অক্টোবর) সকালে আমার কাছে খবর আসে। পরে ইউপি সদস্য লিটন মিয়াকে শাকিলের লাশ আনতে আত্মীয়স্বজনদের সাথে পাঠিয়েছি। বিষয়টি অত্যন্ত বেদনাদায়ক।

 

 

ব্রেকিং নিউজঃ