নাগরপুর থানার ওসিকে স্বশরীরে আদালতে হাজিরের নির্দেশ

169

image_150243.444স্টাফ রিপোর্টারঃ

টাঙ্গাইলের নাগরপুর থানার অফিসার ইনচার্জকে (ওসি) স্বশরীরে আদালতে হাজির হয়ে কারণ দর্শাতে নির্দেশ দিয়েছেন আদালত। গত ১১ নভেম্বর দুপুরে টাঙ্গাইলের সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আমলী আদালতের (নাগরপুর) বিচারক শেখ নাজমুন নাহার এ আদেশ দেন।
আদালত সূত্রে জানা গেছে, নাগরপুর উপজেলার পাইকশা গ্রামের পলান শেখের ছেলে আনোয়ার হোসেন একই গ্রামের আবু বকর শেখের ছেলে মামুন শেখ সহ ৬ জনকে অভিযুক্ত ও ১৮ জনকে স্বাক্ষী করে গত ২০ অক্টোবর উল্লেখিত আদালতে একটি মামলা(নং-১০/১৫, ধারা-৩৬৪/৩৪/৫০৬(ওও) দায়ের করেন। বিজ্ঞ আদালত মামলাটি তদন্ত পূর্বক ব্যবস্থা গ্রহনের জন্য নাগরপুর থানার ওসিকে নির্দেশ দেন। মামলার বাদী আনোয়ার হোসেন নাগরপুর থানার অফিসার ইনচার্জের কাছে ১৫ জন স্বাক্ষীকে উপস্থাপন করেন। কিন্তু ওসি বাদীর দরখাস্ত এফআইআর হিসেবে গণ্য না করায় গত ৮ নভেম্বর পুনরায় আদালতে আবেদন করেন। পুনঃআবেদনের প্রেক্ষিতে বিজ্ঞ আদালত আবারও ৩(তিন) কার্যদিবসের মধ্যে প্রতিবেদন দেয়ার নির্দেশ দেন। ওই নির্দেশও ওসি অমান্য করায় গত ১১ নভেম্বর বিজ্ঞ আদালত নাগরপুর থানার অফিসার ইনচার্জকে (ওসি) আদেশ পাওয়ার ২৪ ঘণ্টার মধ্যে স্বশরীরে উল্লেখিত আমলী আদালতে হাজির হয়ে ব্যাখ্যা দেয়ার নির্দেশ দেন। ঘটনাটি আদালত পাড়ায় ব্যাপক চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে।
এ বিষয়ে নাগরপুর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) রকিব খান জানান, ওই মামলাটির বিষয়ে গত ১০ নভেম্বর প্রতিবেদন বিজ্ঞ আদালতে পাঠানো হয়েছে।

ব্রেকিং নিউজঃ