নাগরপুরে ১২ দোকানী ও ৩ মোটরসাইকেল চালককে জরিমানা

168

স্টাফ রিপোর্টার, নাগরপুর ॥
টাঙ্গাইলের নাগরপুরে রমজানে নিত্যপ্রয়োজনীয় পন্যের মূল্য নিয়ন্ত্রণে রাখতে শক্ত অবস্থানে প্রশাসন। নিয়মিত ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা করে সাবধান করাসহ জরিমানাও করা হচ্ছে। দ্রব্যমূল্য নিয়ন্ত্রণে জেলা ম্যাজিস্ট্রেট শহীদুল ইসলামের নির্দেশনা অনুযায়ী নাগরপুর উপজেলা সহকারি কমিশনার (ভূমি) তারিন মসরুর এ ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা করেন।
বুধবার (৬ মে) দিনভর উপজেলার সদর বাজার, কাঠুরি, বারাপুষা ও দুয়াজানী বাজারে এ ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা করেন তিনি। এ সময় বাড়তি দামে পন্য বিক্রি, মূল্য তালিকা টাঙ্গিয়ে না রাখা, নির্দেশনা না মেনে অপ্রয়োজনীয় দোকানপাট খোলাসহ বিভিন্ন অপরাধে ১২ জন ব্যবসায়ীকে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষন আইন-২০০৯ এবং দন্ডবিধি ১৮৬০ এর বিভিন্ন ধারায় ১২টি মামলার মাধ্যমে ৪৩০০ টাকা জরিমানা করা হয়। এ সময় অন্যান্য দোকানগুলোকে প্রাথমিকভাবে সতর্ক করে দেয়া হয়। এছাড়া উপজেলার বিভিন্ন সড়কে সরকারি নির্দেশনা অমান্য করে একের অধিক লোক মোটরসাইকেলে পরিবহন করায় ৩ মোটরসাইকেল চালককে ১২০০ টাকা জরিমানা করা হয় এবং অন্যান্যদের প্রাথমিকভাবে সতর্ক করে দেয়া হয়।
এ সময় তারিন মসরুর টিনিউজকে বলেন, সরকার দ্রব্যমূল্য নিয়ন্ত্রণে আন্তরিকতার সাথে কাজ করে যাচ্ছে। দেশে ভোগ্য পন্যের পর্যাপ্ত মজুদ রয়েছে। রমজানকে কেন্দ্র করে কোন ব্যবসায়ী যেন কারসাজি করে অহেতুক পণ্যের দাম বাড়িয়ে না দেয় সেদিকে প্রশাসনের তীক্ষè দৃষ্টি রয়েছে। তাই অসাধু ব্যবসায়ীদের দৌরাত্ব রুখতে পুরো রমজান মাস জুড়ে আমাদের অভিযান অব্যাহত থাকবে। এছাড়া লকডাউনে সরকারি নিষেধাজ্ঞাকে উপেক্ষা করে যারা অপ্রয়োজনীয় দোকানপাট খোলা রেখেছেন তাদের প্রাথমিকভাবে সতর্ক করে দেয়া হয়েছে। সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে কেনাবেচা করার জন্য দোকানীদের নির্দেশনা প্রদান করা হয়।

ব্রেকিং নিউজঃ