নাগরপুরে স্বামীর অধিকার ফিরে পেতে গৃহবধুর মামলা

107

স্টাফ রিপোর্টার: টাঙ্গাইলে স্বামীর অধিকার ফিরে পেতে আদালতে মামলা করেছেন নাগরপুর উপজেলার এক গৃহবধু। মামলায় তার স্বামী সিরাজগঞ্জের চৌহালি উপজেলার পূর্ব মুরাদপুর গ্রামের আব্দুস ছাত্তার মাস্টারের ছেলে জহিরুল ইসলামের নাম উল্লেখ করা হয়েছে। ওই গৃহবধু নাগরপুর উপজেলার কোকাদাইর গ্রামের মেয়ে।
মামলা সূত্রে জানা যায়, গত ১৮ অক্টোবর ১০ লাখ টাকা দেন মোহন ধার্য করে তাদের মধ্যে পারিবারিকভাবে বিয়ে হয়। বিয়ের সময় মেয়ের বাবা যৌতুক হিসেবে দুই লাখ টাকা ও দুই ভরি স্বর্ণ দেন।




কিছুদিন সংসার করার পর জহিরুল বিদেশ যাওয়ার কথা বলে আরও তিন লাখ টাকা যৌতুক দাবি করেন। টাকা না দিতে পারায় বেধরক মারধর করে তার স্বামী জহিরুল বাড়ি থেকে পালিয়ে যায়। তারপর থেকে জহিরুল ইসলাম তার স্ত্রীকে আর ভরণপোষণ করেন না। এখন জহিরুলের পরিবার নানা ভাবে ভয়প্রীতি দেখাচ্ছে।
মামলার বাদী বলেন, সংসার করার জন্য আমি জহিরুল ইসলামকে স্বামী হিসেবে মেনে নিয়েছি। আমি তার কাছ থেকে স্ত্রী অধিকার চাই।

আব্দুস ছাত্তার মাস্টার বলেন, আমি শুনেছি ছেলে বিয়ে করেছে কিন্ত মেয়ের পক্ষথেকে এখন পর্যন্ত আমার কাছে আসেনি তাই এব্যাপারে আমি কিছু বলতে চাই না।

 




ব্রেকিং নিউজঃ