নাগরপুরে নোয়াই নদীতে অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ অভিযান

183

স্টাফ রিপোর্টার, নাগরপুর ॥
টাঙ্গাইলের নাগরপুরে অবৈধভাবে দখলকৃত খাল দখলমুক্ত করতে অভিযান পরিচালনা করা হয়েছে। সোমবার (২৩ ডিসেম্বর) সকালে উপজেলার পানানে নোয়াই নদী দখল করে অবৈধভাবে গড়ে উঠা স্থাপনা উচ্ছেদ করা হয়।
জানা যায়, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশনার প্রেক্ষিতে বাংলাদেশ পানি উন্নয়ন বোর্ডের “৬৪ জেলার অভ্যন্তরস্থ ছোট নদী/ খাল জলাশয় পূনঃখনন (১ম পর্যায়)” শীর্ষক প্রকল্পের আওতায় টাঙ্গাইলের নাগরপুর উপজেলার নোয়াই নদীতে অবৈধ দখল মুক্ত করা হয়েছে। টাঙ্গাইলের জেলা প্রশাসক শহীদুল ইসলাম, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) মোস্তাদী কাদেরীর দিক নির্দেশনায় নাগরপুর উপজেলা প্রশাসন ও বাংলাদেশ পানি উন্নয়ন বোর্ডের উদ্যোগে এই অভিযান পরিচালনা করা হয়। সোমবার (২৩ ডিসেম্বর) সকালে উপজেলা নির্বাহী অফিসার সৈয়দ ফয়েজুল ইসলাম, সহকারী কমিশনার (ভূমি) তারিন মসরুর, উপ-বিভগীয় প্রকৌশলী, টাঙ্গাইল পওর উপবিভাগ-২ বাপাউবো ইমাদাদুল হকের উপস্থিততে দখল মুক্ত অভিযান পরিচালিত হয়।
উপজেলার পানান মোজায় ১নং খাস খতিয়ান, দাগ নং-১৭০৭ ও ১৭০৬ শ্রেণী: নদী/রাস্তা প্রায় ৩০ শতাংশ অবৈধভাবে দোকানপাট উত্তোলন করে ব্যবসা চালিয়ে আসছিল অবৈধ দখলদাররা।
এ বিষয়ে নাগরপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসার সৈয়দ ফয়েজুল ইসলাম টিনিউজকে বলেন, পানান নোয়াই নদীর উদ্ধারকৃত জায়গায় বাঁেশর বেষ্টনী দেয়া হয়েছে। ভবিষ্যতে এই জমিতে অবৈধ দখল বা অবৈধ স্থাপনা নির্মাণ হতে বিরত থাকার জন্য সতর্কতামূলক সাইনবোর্ড সকলের উদ্দেশ্যে টানিয়ে দেয়া হয়েছে। পর্যায়ক্রমে উপজেলার প্রতিটি নদী ও খাল দখলমুক্ত করা হবে।
এ সময় নাগরপুর সদর ইউপি চেয়ারম্যান ও ইউপি সদস্যসহ গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন।

ব্রেকিং নিউজঃ