ধনবাড়ীতে রাস্তার সরকারী গাছ কাটার অভিযোগ ইউপি চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে

75

আব্দুল্লাহ আবু এহসান, ধনবাড়ী ॥
টাঙ্গাইলের ধনবাড়ী উপজেলায় সামাজিক বনায়ন কর্মসূচির রাস্তার দুইপাশের সরকারি গাছ অবৈধভাবে কাটার অভিযোগ উঠেছে। উপজেলার বলিভদ্র ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান সুরুজ্জামান মিন্টু তার ইউনিয়নের ৪ ও ৫ নং ওয়ার্ডের দু’পাশের রাস্তার বড় বড় ৮ থেকে ৯টি আকাশমনি (একাশি) গাছ কেটেছেন বলে অভিযোগ উঠেছে।
এ ব্যাপারে প্রতিকার চেয়ে এলাকাবাসীর পক্ষে স্থানীয় আব্দুল কাদের, ফারুক হোসেন, শরাফত আলী ও কামরুজ্জামান ধনবাড়ী উপজেলা নির্বাহী অফিসারের নিকট লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন। লিখিত অভিযোগের অনুলিপি সহকারী কমিশনার (ভূমি) ধনবাড়ী, অফিসার ইনচার্জ ধনবাড়ী থানা এবং ধনবাড়ী প্রেসক্লাব টাঙ্গাইল বরাবর প্রদান করছেন।
লিখিত অভিযোগ থেকে জানা যায়, ধনবাড়ী চৌরাস্তা হয়ে কেরামজানী রাস্তার বলিভদ্র ইউনিয়নে এলজিইডি কর্তৃক রাস্তা প্রশস্তকরণের কাজ চলছে। এজন্য বলিভদ্র ইউনিয়নে কাননিআটা থেকে বলিভদ্র বাজার পর্যন্ত রাস্তার দু’পাশের মাটি গর্ত করা হয়েছে। এই সুযোগে ইউপি চেয়ারম্যান কাননিআটা মোড় থেকে তার আশপাশের বড় আকারে ৮/৯টি একাশি গাছ তার লোকজন দিয়ে কেটে ফেলেন। ঘটনাটি জানাজানি হলে ইউপি চেয়ারম্যান রাতের অন্ধকারে ভ্যান গাড়ি দিয়ে কিছু গাছ সরিয়ে ফেলেন। এদিকে এলাকাবাসীর নিকট খবর পেয়ে ধনবাড়ী উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) হাসান মো. হাফিজুর রহমান টুটুল বুধবার (২৮ এপ্রিল) ঘটনাস্থলে গিয়ে কিছু গাছের গুঁড়ি উদ্ধার করে জব্দ করে উপজেলা পরিষদ চত্বরে নিয়ে আসেন।
অপরদিকে, অভিযোগের কপি পেয়ে স্থানীয় সাংবাদিকরা শুক্রবার (৩০ এপ্রিল) ঘটনাস্থলে গিয়ে এবং স্থানীয় এলাকাবাসীর সাথে কথা বলে ঘটনার সত্যতা পান। বর্তমানে জব্দকৃত গাছের গুঁড়িগুলো উপজেলা পরিষদ চত্বরেই রাখা আছে। বলিভদ্র ইউনিয়ন পরিষদের ৪ নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য হাবিবুর রহমান টিনিউজকে বলেন, তার বিরুদ্ধে কেউ কিছু বলতে সাহস পান না। তিনি এই পরিষদে আসার পর থেকেই গাছ কাটা শুরু করছেন। চেয়ারম্যানের ব্যক্তিগত সহকারী বলিভদ্র ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক আরিফুল ইসলামকে (২২) সাথে নিয়ে দলের বিরুদ্ধে নানা অনিয়ম করেন। এসব অনিয়মের কারণে উপজেলা ছাত্রলীগ কয়েকদিন আগে তাকে বহিস্কার করেন।
গাছ কাটার বিষয়ে বলিভদ্র ইউপি চেয়ারম্যান সরুজ্জামান মিন্টু টিনিউজকে বলেন, গাছ কাটার বিষয়ে ইউএনও স্যার আমাকে মৌখিকভাবে অনুমতি দিয়েছে। এছাড়া হীরা ভাই (ধনবাড়ী উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান) এর সাথে কথা বলে এ বিষয়ে বিস্তারিত পরে আপনাদের জানাবো।
এ ব্যাপারে ধনবাড়ী উপজেলা নির্বাহী অফিসার শেখ শামছুল আরেফীন টিনিউজকে জানান, গাছ কাটার ব্যাপারে চেয়ারম্যানকে কোন অনুমতি দেয়া হয়নি। উপজেলা প্রশাসন এলাকাবাসীর নিকট থেকে সংবাদ পেয়ে ঘটনাস্থল থেকে কিছু গাছের গুঁড়ি উদ্ধার করতে পেরেছে। গাছগুলো সামাজিক বনায়নের জন্য রোপনকৃত। তিনি এসব গাছ কাটতে পারেন না। তার বিরুদ্ধে দ্রুতই আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

 

ব্রেকিং নিউজঃ