দেশের কারাগারে ১১ হাজার বন্দির জন্য চিকিৎসক মাত্র একজন!

94

1স্টাফ রিপোর্টারঃ
বাংলাদেশের কারাগারে বন্দিদের সংখ্যানুপাতে ৮৮ জন চিকিৎসক থাকার কথা থাকলেও মাত্র ৭ জন ডাক্তার রয়েছে বলে জানান ঢাকা প্রিজন ডিরেক্টরেট-এর অতিরিক্ত মহা-পরিদর্শক কর্ণেল ফজলুল কবির। তিনি বলেন, কারাগারে ধারণ ক্ষমতা ৩৪ হাজার, কিন্তু  বন্দি রয়েছে ৭৭ হাজার। সে হিসেবে ১১ হাজার বন্দির জন্য চিকিৎসক (ডাক্তার) রয়েছে মাত্র একজন। কারাগারে ২২ থেকে ২৯ বছর বয়সী বন্দিদের সংখ্যাই বেশি। পুরুষ ও মহিলা বন্দির অনুপাত ১০০:৩।
সোমবার দুপুরে টাঙ্গাইল মাওলানা ভাসানী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্রিমিনোলজি অ্যান্ড পুলিশ সায়েন্স (সিপিএস) বিভাগের উদ্যোগে হায়ার এডুকেশন অ্যান্ড অ্যানহেন্সমেন্ট প্রজেক্ট’র সহযোগীতায় ‘বাংলাদেশের কারাগারে মানবিক চ্যালেঞ্জ’ বিষয়ক সেমিনারে মূখ্য আলোচকের বক্তব্যে তিনি একথা বলেন।
বিশ্ববিদ্যালয়ের সিপিএস বিভাগ মিলনায়তনে আয়োজিত সেমিনারে ‘পাশ্চাত্যে সমসাময়িক সন্ত্রাসবাদ: ধারণা ও ভ্রান্তধারণা’ বিষয়ের উপর আলোচনা করেন, কানাডার মেনিটোবা ইউনিভার্সিটির আর্থার ভি.মাউরো সেন্টার ফর পিস অ্যান্ড জাষ্টিস স্টাডিজ’র পিএইডি শিক্ষার্থী কাওসার আহমেদ।
সেমিনারে ক্রিমিনোলজি অ্যান্ড পুলিশ সায়েন্স (সিপিএস) বিভাগের চেয়ারম্যান নুরজাহান খাতুন, একই বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক মুহাম্মদ উমর ফারুক, সহকারী অধ্যাপক মোহাম্মদ জহিরুল ইসলাম, মুহাম্মদ আব্দুল কাদের মিয়া, ইসতিয়াক আহমেদ তালুকদার, বশির উদ্দিন খান, মুনমন বিনতে আজিজ, সুব্রত ব্যানার্জী প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।
অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন সিপিএস বিভাগের সহকারী অধ্যাপক রুখসানা সিদ্দীকা। বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন বিভাগের শিক্ষার্থীরা সেমিনারে অংশগ্রহণ করে।

ব্রেকিং নিউজঃ