দেলদুয়ারে বিয়ের দাবিতে প্রেমিকের বাড়িতে প্রেমিকার অনশন

238

স্টাফ রিপোর্টার ॥
টাঙ্গাইলের দেলদুয়ার উপজেলার চরপাড়া গ্রামে বিয়ের দাবিতে প্রেমিকের বাড়িতে অনশন করছে এক কিশোরী। বুধবার (৬ জুলাই) সকালে ফাজিলহাটি ইউপি চেয়ারম্যান শাহাদাৎ হোসেন এ তথ্য টিনিউজকে নিশ্চিত করেন।

জানা গেছে, শনিবার (২ জুলাই) বিকেলে প্রেমিক পায়েলের বাড়িতে গিয়ে উঠেন ওই কিশোরী। এ সময় বাড়িতে প্রেমিকার অবস্থানের কথা শুনে বাড়ি থেকে পালিয়ে যান প্রেমিক পায়েল। এ ঘটনায় এলাকায় ব্যাপক চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে। স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, উপজেলা ফাজিলহাটি ইউনিয়নের চরপাড়া গ্রামের খোরশেদ আলমের ছেলে পায়েলের সঙ্গে চলাফেরার সুবাদে পরিচয় হয় ওই কিশোরীর। এরপরে দু’জনের মধ্যে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে উঠে। বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে প্রেমিক পায়েল ওই কিশোরীর সঙ্গে শারীরিক সম্পর্কে লিপ্ত হয়। কিছুদিন আগে মেয়েটি পায়েলকে বিয়ের কথা বললে, সে যোগাযোগ বন্ধ করে দেয়। পরে শনিবার (২ জুলাই) বিকেল থেকে ওই কিশোরী প্রেমিক পায়েলের বাড়িতে বিয়ের দাবিতে অনশন শুরু করেন।

 

অনশনরত অবস্থায় ওই কিশোরী টিনিউজকে জানান, পায়েল আমার সঙ্গে প্রতারণা করেছে। সে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে আমার সঙ্গে শারীরিক সম্পর্ক করেছে। এখন বিয়ের কথা বললে, তাল বাহানা করছে। অনশন অবস্থায় আমাকে জোর করে কয়েকবার বাড়ি থেকে সরিয়ে দেওয়া হয়েছিল।

ওই কিশোরীর অনশন বিষয়ে স্থানীয় ইউপি সদস্য সেকান্দার আলী টিনিউজকে জানান, বিষয়টি আমি শুনেছি। তবে ওই বাড়িতে যাওয়া হয়নি।

এ ব্যাপারে দেলদুয়ার উপজেলার ফাজিলহাটি ইউপি চেয়ারম্যান শওকত হোসেন টিনিউজকে জানান, বিষয়টি আমিও শুনেছি। দুইপক্ষের লোকজনকে ডেকে আইনি ব্যবস্থা নেওয়ার কথা বলা হয়েছে।

ব্রেকিং নিউজঃ