ঢাবি শিক্ষার্থী সখীপুরের ছেলে হামিদ তিন দিন ধরে নিখোঁজ

105

স্টাফ রিপোর্টার ॥
টাঙ্গাইলের সখীপুরে বাড়ি ফেরার পথে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী হামিদ সিকদার হিমেল নিখোঁজ হয়েছেন। গত শুক্রবার (১৯ নভেম্বর) ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শহীদুল্লাহ হল থেকে গ্রামের বাড়ি সখীপুর উপজেলার জামালহাটকোড়া ফেরার জন্য রওয়ানা দেন তিনি। এরপর থেকে নিখোঁজ রয়েছেন হিমেল। গত তিন দিন ধরে তাকে খুঁজে পাওয়া যাচ্ছে না। তার ব্যক্তিগত মোবাইল ফোনটিও বন্ধ রয়েছে।
হামিদ সিকদার হিমেল ঢাকাস্থ সখীপুর থানা স্টুডেণ্ট (ডিএসটিএস) অ্যাসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক এবং টাঙ্গাইলের সখীপুর উপজেলার জামালহাটকোড়া গ্রামের বিল্লাল সিকদারের ছেলে। তিনি ঢাবির রসায়ন বিভাগের ২০১৪-১৫ সেশনের শিক্ষার্থী এবং বর্তমানে মাস্টার্সে অধ্যয়নরত। হিমেলের বাবা বিল্লাল সিকদার, চাচাত ভাই মাহফুজ, একাধিক বন্ধু ও শাহবাগ থানার জিডি সূত্রে জানা যায়, গত বৃহস্পতিবার (১৮ নভেম্বর) রাতে হিমেল তার বাবাকে মোবাইল ফোনে জানান, শুক্রবার (১৯ নভেম্বর) অথবা শনিবার (২০ নভেম্বর) তিনি বাড়ি ফিরবেন। সেই লক্ষে শুক্রবার (১৯ নভেম্বর) সকালে বিশ্ববিদ্যালয়ের হল থেকে বের হয়ে বাড়ির উদ্দেশে রওয়ানা দেন তিনি। এরপর থেকেই তাকে খুঁজে পাওয়া যাচ্ছে না। তার ব্যবহৃত মোবাইল ফোনও বন্ধ রয়েছে।
হিমেলের বন্ধু ফেরদৌস আহমেদ টিনিউজকে বলেন, শহীদুল্লাহ হলের প্রভোস্ট ইতোমধ্যে হিমেলের কক্ষ পরিদর্শন করেছেন। তিনি আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করবেন।
হিমেলের বাবা বিল্লাল সিকদার টিনিউজকে জানান, সম্ভাব্য সব জায়গায় খুঁজেও তারা ছেলের ছেলের সন্ধান পাননি। তাদের সঙ্গে কখনও মনোমালিন্যও হয়নি, তাহলে কেন হিমেল নিখোঁজ হলেন তা তিনি বুঝতে পারছেন না। তিনি আরও জানান, শনিবার (২০ নভেম্বর) সন্ধ্যায় ঢাবির অপর শিক্ষার্থী ও হিমেলের চাচাত ভাই মাহফুজ তালুকদার ঢাকাস্থ শাহবাগ থানায় সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করেছেন। এছাড়া হিমেলের একাধিক বন্ধুও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে তার সন্ধান চেয়ে পোস্ট দিয়েছেন।
এ বিষয়ে ঢাকার শাহবাগ থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) মোহাম্মদ সেলিম টিনিউজকে জানান, নিখোঁজ ঢাবি শিক্ষার্থী হিমেলের ব্যবহৃত মোবাইলের সর্বশেষ লোকেশন টাঙ্গাইল দেখাচ্ছে। কিন্তু মোবাইল ফোনটি বন্ধ পাওয়া যাচ্ছে। তারা বিভিন্নভাবে তাকে খুঁজে বের করার চেষ্টা করছেন।

ব্রেকিং নিউজঃ