রবিবার, সেপ্টেম্বর 27, 2020
Home টাঙ্গাইল ঢাকা-টাঙ্গাইল-বঙ্গবন্ধু সেতু মহাসড়কে থেমে থেমে যানজট

ঢাকা-টাঙ্গাইল-বঙ্গবন্ধু সেতু মহাসড়কে থেমে থেমে যানজট

স্টাফ রিপোর্টারঃ ঢাকা-টাঙ্গাইল-বঙ্গবন্ধু সেতু মহাসড়কের টাঙ্গাইলের অংশের বিভিন্ন পয়েন্টে থেমে থেমে প্রায় ৫০ কি.মি. দীর্ঘ যানজটের সৃষ্টি হয়েছে। শনিবার (১০ আগষ্ট) ভোর থেকে মহাসড়কের বঙ্গবন্ধুসেতু থেকে মির্জাপুরের গোড়াই পর্যন্ত থেমে থেমে দীর্ঘ এ যানজটের সৃষ্টি হয়। ফলে চরম দুর্ভোগে পড়েছেন ঈদে ঘরমুখো মানুষ। এ নিউজ লেখা পর্যন্ত (দুপুর সাড়ে ১২ টা) থেমে থেমে যানজট অব্যাহত রয়েছে।
পুলিশ জানায়, সিরাগঞ্জের অংশে গাড়ি গাড়ি টানতে না পারায় এবং শনিবার কয়েক দফায় টোল বন্ধ থাকা এবং অতিরিক্ত গাড়ির চাপের কারণে এ যানজটের সৃষ্টি হয়।

সরেজমিনে দেখা যায়, শনিবার সকাল থেকেই গাড়ি রসুলপুর, রাবনা, ঘারিন্দা, নগর জলফে, করটিয়া, নাটিয়া পাড়া, পাকুল্লা ধল্লাসহ বিভিন্ন স্থানে গাড়ি দীর্ঘ লাইন চোখে পড়ে।

রংপুর গামী যাত্রী মো. সাইফুল ইসলাম বলেন, চন্দ্রা থেকে টাঙ্গাইলের রাবনা পর্যন্ত আসতে প্রায় ৮ ঘন্টা সময় লেগেছে। সকালে ২ ঘন্টার বেশি সময় রাবনা বাইপাসে দাড়িয়ে রয়েছি। আমার চরম দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে।
দিনাজপুরের আব্দুল খালেক বলেন, এতেই যানজটের ভোগান্তি অপর দিকে প্রচন্ড গরম। বিশেষ করে নারী ও শিশুরা বেশি দুর্ভোগে পড়েছেন।

টাঙ্গাইলের পুলিশ সুপার সঞ্জিত কুমার রায় বলেন, আমাদের মিটিং এ বলা হয়েছিলো ঈদের তিনদিন আগে ভারী যানবাহন ট্রাক, কাভারভ্যানসহ মডেল আউট কোন গাড়ি চলবে না। কিন্তু ঈদ উপলক্ষে এই ধরনের গাড়িই বেশি চলতেছে। এধরনের গাড়ি কিছু দূর যাওয়ার পর নষ্ট হয়ে যায়। পরে সেই গাড়ি ধাক্কা দিয়ে সড়ক থেকে সরাতে হয়। অপর দিকে সিরাজগেঞ্জর নকলা ব্রিজ, হাটিকামরুল ও কড্ডা মোড়ে গিয়ে গাড়ি গুলো স্লো হয়ে যায়। ফলে পিছন দিক থেকে কোন গাড়ি আর সামনে যেতে না পারায় বঙ্গবন্ধু সেতু টোল বন্ধ হয়ে যায়। গত ৮ তারিখ থেকে এ পর্যন্ত ১২ বার টোল বন্ধ হয়ে গিয়েছে। একদিকে রাস্তা খারাপ অন্যদিকে, সিরাজগঞ্জের হাটিকামরুল, নকলা ব্রীজ, কড্ডা মোড়সহ বিভিন্ন পয়েন্টে যানজটের কারণে টাঙ্গাইলে দীর্ঘ যানজটের সৃষ্টি হয়েছে।
পুলিশ সুপার আরও বলেন, মহাসড়কে সাত শতাধিক পুলিশ কাজ করে যানবাহন ও মানুষের নিরাপত্তা দিচ্ছে। আশা করছি বিকেলের মধ্যে যানজট ছেড়ে যাবে।
এ বিষয়ে জেলা প্রশাসক মো. শহীদুল ইসলাম বলেন, প্রতিবছরই ঢাকা-টাঙ্গাইল-বঙ্গবন্ধু সেতু মহাসড়কে যানজটের সৃষ্টি হয়। এবার কোরবানির ঈদে একটু বেশি মানুষ বাড়ি ফিরছেন। এই মহাসড়কে দিনে প্রতিদিন প্রায় ৩০/৩৫ হাজার গাড়ি চলাচল করছে। এতো গুলো গাড়ি পারাপারে মতো ক্যাপাসিটি সড়কের নাই। ফোর লেন থেকে গাড়ি যখন টু লেনে আসে তখন গাড়ি গুলো খুব স্লো হয়ে যায়। ঈদ উপলক্ষে জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে ইউএনও, এসিল্যান্ড, ম্যাজিস্ট্রেট টাঙ্গাইলের অংশে কাজ করে যাচ্ছে। অন্য ঈদের তুলনায় এ ঈদে একটু বেশি গাড়ি নষ্ট হচ্ছে। সে গুলো তাৎক্ষনিক কাজ করে যাচ্ছে।

ব্রেকিং নিউজঃ