টাঙ্গাইল বঙ্গবন্ধু প্রিমিয়ার ডিভিশন ক্রিকেট লীগে ইয়ং স্পোটিং সেমিফাইনালে

90

মোজাম্মেল হক ॥
বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লীগের টাঙ্গাইলের হুগড়া এলাকার তারকা ক্রিকেটার মেহেদী মারুফ ও তরুন জয় সুন্দর ক্রিকেট খেলে করটিয়া মারুফ স্মৃতি ক্লাবকে জয়ের বন্দরে নিয়ে যাওয়ার পথে বাঁধা হয়ে দাঁড়ান টাঙ্গাইলের এক সময়ের তারকা ৪৭ বছর বয়সী বাঁহাতি স্পিনার ক্রিকেটার রাসেল খান। ঢাকা প্রিমিয়ার লীগ ওয়ারী ক্লাবের সাবেক খেলোয়ার রাসেল খান তার স্পিন বোলিংয়ে মেহেদী মারুফসহ পর পর দুটি উইকেট নিয়ে মারুফ স্মৃতি ক্লাবের ৮০ রানের মধ্যে ৪ উইকেটের পতন ঘটায়। এতে মারুফ স্মৃতি ক্লাব আর খেলায় আর ফিরে আসা হয়নি।
বৃহস্পতিবার (২৫ নভেম্বর) টাঙ্গাইল স্টেডিয়ামে জেলা ক্রীড়া সংস্থার ক্রিকেট উপ-পরিষদ আয়োজিত বঙ্গবন্ধু প্রিমিয়ার ডিভিশন ক্রিকেট লীগের “খ” গ্রুপের সর্বশেষ খেলায় ইয়ং স্পোটিং ক্লাব ৪৭ রানে করটিয়া মারুফ স্মৃতি ক্লাবকে হারিয়ে সেমিফাইনালে উঠেছে। আগামী (২৮ নভেম্বর) ২য় সেমিফাইনালে ইয়ং স্পোটিং মুখোমুখি হবে “ক” গ্রুপ রানার্সআপ প্রগতিশীল স্বদেশী সংঘে। সকালে টস জয়ী করটিয়া মারুফ স্মৃতি ক্লাব প্রথমে বোলিং করার সিদ্ধান্ত নিলে ইয়ং স্পোটিং ক্লাব ৪৯.৫ ওভারে ১৫৯ রানে অলআউট হয়। দলের পক্ষে নাজমুল সর্বোচ্চ ৪৪, হৃদয় ৩৫ ও দ্রব ২৮ রান করে। বোলিংয়ে বিজিত মারুফ স্মৃতি সংঘের হিমেল ৯ রানে ৩টি উইকেট দখল করে।
জবাবে ১৬০ রানে জয়ের লক্ষ্যে উদ্বোধনী ব্যাটসম্যান রানা শুরুতে আউট হলেও মেহেদী মারুফ ও জয় সুন্দর ভাবে খেলতে থাকে। এ সময় ইয়ং স্পোটিং এর ফিল্ডাররা ৩ থেকে ৪টি সহজ ক্যাচ মিস করে। পানি পানের বিরতির পর রাসেল খান মেহেদী মারুফসহ ২টি উইকেট পতন ঘটালে মারুফ স্মৃতি সংঘের ব্যাটসম্যানের ঘর ভাঙ্গতে থাকে। খেলার ৩৬.৫ ওভারে ১১২ রানে ১০ উইকেটের পতন হলে ৪৭ রানে পরাজিত হয়। দলের পক্ষে জয় সর্বোচ্চ ৩১ ও মেহেদী মারুফ ২২ রান করে। বোলিংয়ে রাসেল খান ও নাজমুল হোসেন মিলন যথাক্রমে ২৬ ও ২৩ রানে ৩টি করে উইকেট দখল করে।
খেলায় আম্পায়ার ছিলেন- বজলুর রহমান ও তমাল বিহারী দাস এবং স্কোরার- ভ্রমর চন্দ্র ঘোষ ঝুটন। শুক্রবার (২৬ নভেম্বর) প্রথম সেমিফাইনাল খেলায় অংশগ্রহণ করবে- ইষ্টার্ন স্পোটিং ক্লাব বনাম থানাপাড়া ক্লাব।

 

 

 

ব্রেকিং নিউজঃ