টাঙ্গাইলে মানব পাচার প্রতিরোধে মতবিনিময় সভা

113

স্টাফ রিপোর্টারঃ টাঙ্গাইলে মানব পাচার প্রতিরোধে বিচার প্রাপ্তির ক্ষেত্রে প্রতিবন্ধকতা দুরীকরণের উপায় নিয়ে বিভিন্ন এনজিওদের সাথে মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।
রোববার (২০ অক্টোবর) টাঙ্গাইল সাধারন গ্রন্থাগার হল রুমে বাংলাদেশ মানবাধিকার বাস্তবায়ন সংস্থার মানব পাচার প্রতিরোধ প্রকল্পের আয়োজনে মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়।
সভায় বাংলাদেশ মানবাধিকার বাস্তবায়ন সংস্থার জেলা ইউনিটের সদস্য প্রফেসর ড. কামরুজ্জামানের সভাপতিত্বে বক্তব্য রাখেনÑ বাংলাদেশ মানবাধিকার বাস্তবায়ন সংস্থার সমন্বয়কারী মোজাম্মেল হক, সহকারী সমন্বয়কারী সাইফুল ইসলাম চৌধুরী। সভা পরিচারলা করেন মানব পাচার প্রকল্পের জেলা সমন্বয়কারী এডভোকেট আল রুহী।
মতবিনিময় সভায় বক্তারা বলেন, দারিদ্রতা এবং কর্মসংস্থানের অভাবে অশিক্ষিত ও স্বল্পশিক্ষিত নারী-পুরুষ ও শিশুরা পাচারকারী চক্রের হাত থেকে নিজেদের রক্ষা করতে পারে না। প্রেম, বিয়ে কিনবা বিদেশে চাকরি দেয়ার প্রলোভন দেখিয়ে এ ধরনের ঘটনা ঘটায়। সংঘবদ্ধ পাচারকারী চক্র নারীদের পতিতাবৃত্তিতে বাধ্য করে। অনেকক্ষেত্রে এদেশের নারী ও শিশুরা রক্ত ও অঙ্গ-প্রত্যঙ্গের উৎস হিসেবেও দেশে ও বিদেশে ব্যবহৃত হচ্ছে। পাচার কোন বিশেষ একক ব্যক্তির কাজ নয়। শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত বিভিন্ন পর্যায়ে একাধিক ব্যক্তি এই কাজের সাথে জড়িত থাকে।
তিনি আরও বলেন, মানব পাচার আইন পাশ হওয়ার পর ২০১২ সাল থেকে ২০১৮ সালে ৩১ জুলাই পর্যন্ত বিভিন্ন জেলায় মানব পাচার আইনে মামলা হয়েছে ৪ হাজার ১শ’ ৫২টি। তার মধ্যে ২০১৭ সালে ৭৭৮টি, ২০১৮ সালে ২৬৭টি মামলায় হয়। তার মধ্যে ৮টি মামলা নিষ্পত্তি হয়েছে সমঝোতার ভিত্তিতে।
টাঙ্গাইল জেলায় ২০১৮ সাল পর্যন্ত মামলা হয়েছে ৪১টি। এর মধ্যে সমঝোতার ভিত্তিতে মামলার নিষ্পত্তি হয়েছে ১২টি। বর্তমানে আদালতে বিচারাধীন রয়েছে ২৩টি ও তদন্তাধীন ৬টি।
এছাড়াও আরও অনেক ঘটনা ধরা ছোয়ার বাইরে থাকে, যেগুলো আইনের আওতায় আসে না এবং সামাজিকভাবে সমঝোতা করেই শেষ হয়ে যায়।
এসময় জেলার ১২টি সংগঠনের কর্মকর্তাবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

ব্রেকিং নিউজঃ