টাঙ্গাইলে ভুয়া ডিবি পরিচয়ে ছিনতাই ॥ সিএনজিসহ দুইজন আটক

300

স্টাফ রিপোর্টার ॥
টাঙ্গাইলে ভূয়া ডিবি পরিচয়ে ছিনতাইয়ের ঘটনায় সিএনজিসহ দুইজনকে আটক করেছে পুলিশ। গত সোমবার (৫ এপ্রিল) রাত সাড়ে ৩ টার দিকে সদর উপজেলার করটিয়া ইউনিয়নের গড়াসিন বাজারের মোস্তাফিজুর রহমানের গ্যারেজ থেকে তালা ভেঙে নাজমুল আহমেদ নামের এক ব্যক্তির সিএনজি চুরি হয়। গাড়ির মালিক নাজমুল আহমেদ গত মঙ্গলবার (৬ এপ্রিল) সদর থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। গাজীপুরের কোনাবাড়ী থানার বাইমাইল এলাকা থেকে সিএনজিসহ দুই চোরকে আটক করেছে পুলিশ। আটককৃতরা হলো- আশুলিয়া থানার মৃত আইয়ুব আলী পাঠানের ছেলে মানিক (৩২) ও ঝালকাঠি জেলার কাঠাঁলিয়া গ্রামের মৃত মোকছেদ হাওলাদারের ছেলে আল আমিন (২০)। এ ঘটনায় আরও দুইজন আসামী পালিয়ে যায়।
পরে কোনাবাড়ী থানা থেকে সিএনজির মালিক নাজমুল আহমেদকে মোবাইল করলে নাজমুল কোনাবাড়ী থানায় গিয়ে তার গাড়ীটি শনাক্ত করেন।
মামলার বিবরণে জানা যায়, গত সোমবার (৫ এপ্রিল) রাত সাড়ে ৩টার দিকে দুষ্কৃতিকারীরা একটি মাইক্রোবাসে এসে গড়াশিন চৌরাস্তা বাজারের দুই নাইট গার্ডকে ডিবি পরিচয় দিয়ে প্রথমে কুদ্দুস আলী নাইট গার্ড ও পরে বাবুল নাইট গার্ডকে মিথ্যা কথা বলে মাইক্রোবাসে তাদের বন্দী করে মুখে কসটেপ লাগিয়ে দেয়। তাদের বাঐখোলা নাহিয়ান ফিলিং স্টেশনের কাছে ঢাকামুখী হাইওয়ে রোডের উপর নাইট গার্ড দুইজনকে দুষ্টৃতিকারীরা ধাক্কা দিয়ে ফেলে দিতে গেলে মাইক্রোবাস চালক গাড়ীর নিয়ন্ত্রন হারিয়ে রোডের আইল্যান্ডের সাথে ধাক্কা লাগে। দূর্ঘটনা কবলিত হলে অজ্ঞাতনামা মাইক্রোবাস চালু করতে না পেরে দুষ্কৃতিকারীরা মাইক্রোবাস ও দুইজন নাইট গার্ডকে রেখে চুরি করা সিএনজি যোগে ঢাকার দিকে পালিয়ে যায়। পরে বাইমাইল নামকস্থানে পুলিশের কাছে ধরা পড়ে। কোনাবাড়ী থানার পুলিশ দুই আসামী ও সিএনজিকে টাঙ্গাইল সদর থানার এসআই মুরাদের কাছে হস্তান্তর করেন। ছিনতাই করতে ব্যবহৃত মাইক্রোবাসটিও টাঙ্গাইল সদর থানায় জব্দ করা হয়েছে।

 

 

 

 

 

ব্রেকিং নিউজঃ