টাঙ্গাইলে বন্দুকযুদ্ধে ৩ সর্বহারা নেতা নিহত ॥ ৩ র‌্যাব সদস্য আহত-অস্ত্র উদ্ধার

202

654মাসুদ আব্দুল্লাহঃ
টাঙ্গাইলে র‌্যাবের সাথে বন্দুকযুদ্ধে নিষিদ্ধ ঘোষিত পুর্ববাংলা কমিউনিষ্ট পার্টি সর্বহারা গ্রুপের তিন আঞ্চলিক নেতা নিহত হয়েছে। এসময় র‌্যাবের ৩ সদস্যও আহত হয়। বৃহস্পতিবার (২৪ ডিসেম্বর) ভোরে টাঙ্গাইল সদর উপজেলার চরাঞ্চল কাকুয়া ইউনিয়নের ওমরপুর গ্রামে এ বন্দুকযুদ্ধের ঘটনা ঘটে। গুরুত্বর আহত অবস্থায় তাদের তিনজনকে টাঙ্গাইল মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাদের মৃত ঘোষনা করেন।
369টাঙ্গাইল র‌্যাবের কমান্ডার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোহাম্মদ মহিউদ্দিন ফারুকী জানান, নিষিদ্ধ ঘোষিত পুর্ববাংলা কমিউনিষ্ট পার্টি সর্বহারা গ্রুপের কয়েকজন সদস্য সদর উপজেলার চরাঞ্চল কাকুয়া ইউনিয়নের ওমরপুর গ্রামের একটি বাড়িতে বসে সন্ত্রাসী কর্মকান্ড পরিচালনা করার জন্য গোপন বৈঠক করছিল। এমন তথ্যের ভিত্তিতে র‌্যাবের একটি দল বৃহস্প্রতিবার ভোর ৪টার সময় ওই বাড়িতে অভিযান চালায়। র‌্যাবের উপস্থিতি টের পেয়ে সর্বহারা দলের সদস্যরা র‌্যাবকে লক্ষ্য করে প্রথমে গুলি করে। এ সময় র‌্যাবও পাল্টা গুলি চালায়। এতে তিনজনকে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় উদ্ধার করে টাঙ্গাইল মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাদের মৃত ঘোষনা করেন। নিহতরা হলো- সদর উপজেলার র্খোদ্দ যুগনী গ্রামের আব্দুর রহিমের ছেলে সাদ্দাম (৩০), দোহাজানী গ্রামের মহর পাগলার ছেলে ওমর আলী (৩৪) ও বেগুনটাল গ্রামের রবিউল্লাহর ছেলে কাশেম (৩৫)। র‌্যাব ঘটনাস্থল থেকে দুইটি বিদেশী ও একটি দেশি পিস্তল, সাত রাউন্ড গুলি, দুইটি ম্যাগজিন ও দুইটি কার্তুজ উদ্ধার করেছে। এদের বিরুদ্ধে টাঙ্গাইলসহ দেশের বিভিন্ন থানায় হত্যা, অপহরণ, গুম ও চাদাঁবাজীসহ ১৫/১৬টি মামলা রয়েছে বলে জানান র‌্যাবের কমান্ডার।
এ ঘটনায় র‌্যাবের ৩ সদস্য আহত হয়। এরা হলেন,এমসআই শামসুজ্জামান,সার্জেন্ট তৈমুর, ও কর্পোরাল মোহাম্মদ আলী। এদের টাঙ্গাইল মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসা দেয়া হয়।

ব্রেকিং নিউজঃ