টাঙ্গাইলে প্রশান্তির বৃষ্টি হলেও বেড়েছে দুর্ভোগ ॥ জলাবদ্ধতায় নাকাল শহরবাসী

103

জাহিদ হাসান ॥
প্রশান্তি ও কাঙ্খিত বৃষ্টি হচ্ছে সোমবার (১ আগস্ট) সকাল থেকেই টাঙ্গাইলের বিভিন্ন জায়গায়। প্রশান্তির বৃষ্টি হলেও টাঙ্গাইল পৌর শহরজুড়ে বেড়েছে দুর্ভোগের মাত্রা। জলাবদ্ধতায় নাকাল হয়ে উঠে শহরবাসী। এ যেন শহরবাসীর কপালে চিরচায়িত অভিশাপের চিহ্ন। সড়ক ও ড্রেন সংস্কারের কারণে এমন এক বেলার বৃষ্টিতে চরম কষ্টে দিনাতিপাত করছে পৌরবাসী।

জানা যায়, টাঙ্গাইল পৌর শহরের কলেজ পাড়া, প্যারাডাইস পাড়া, আকুর টাকুর পাড়া, বেড়াডোমা, দিঘুলীয়া, আদি টাঙ্গাইল, সাবালিয়া, কোদালিয়া, ডিষ্ট্রিক, বেতকাসহ বিভিন্ন এলাকায় জলাবদ্ধতার সৃষ্টি হয়েছে। আবর্জনা ও ড্রেনে ময়লা জমে থাকায় পানি নিষ্কাশন ব্যাহত হচ্ছে। এতে বৃষ্টি হলে ড্রেনের পানি উপচে রাস্তায় নেমে আসছে।

 

পৌর বাসিন্দা রিয়াদ হাসান টিনিউজকে জানান, টাঙ্গাইল পৌরসভা নাগরিক সুবিধা না দিয়ে ব্যবসায় লিপ্ত হয়ে উঠেছে। শহরের প্রায় সড়ক-উপসড়ক ভাঙা। বিভিন্ন সড়কে ছোট বা মাঝাড়ি কোন যানবাহন চলাচল করতে চায় না। একটু বৃষ্টি হলেই রাস্তায় জমে যায় পানি। বাসা-বাড়ি ও ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে ঢুকে পড়ে ময়লা পানি। স্থানীয় কাউন্সিলরের উদাসীনতায় এখানকার মানুষ কষ্টে আছে। বাজারের ব্যবসায়ী কুদ্দুস করিম টিনিউজকে বলেন, এখানকার বড় অভিশাপ জলাবদ্ধতা। দীর্ঘদিন ধরে ব্যবসায়ীরা এই সমস্যায় ভুগছেন। বৃষ্টি আসলেই সবার মনে কালো দাগ কাটে। বৃষ্টি যেন দুর্ভোগ হয়ে আসে এই এলাকার মানুষের জন্য। বৃষ্টি হলে নালা ও রাস্তার পানি ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে ঢুকে নষ্ট হয়ে যায় মালামাল।

এ ব্যাপারে টাঙ্গাইল পৌরসভার মেয়র সিরাজুল হক আলমগীর টিনিউজকে বলেন, বার বার ড্রেন পরিষ্কার করার পরও আবার ভরাট হয়ে যায়। কারণ রাস্তা ও ড্রেন নির্মাণের কাজ চলছে। কিছু সড়কের ড্রেনগুলো ভরাট হয়ে যাচ্ছে। পরিকল্পিত ড্রেনেজ ব্যবস্থার জন্য কাজ চলছে।

ব্রেকিং নিউজঃ