টাঙ্গাইলে প্রথম করোনা রোগী শনাক্ত ॥ মির্জাপুরে ৩৫ বাড়ি লকডাউন

30

স্টাফ রিপোর্টার, মির্জাপুর ॥
করোনা ভাইরাসের জন্য মঙ্গলবার (৭ এপ্রিল) জেলা প্রশাসনের ঘোষিত লক ডাউনের কারণে টাঙ্গাইল জেলার সকল যানবাহন চলাচল বন্ধ হয়ে রয়েছে। শহরের কোন দোকান পাট খুলেনি। তবে পায়ে হাটা মানুষজন শহরে চলাফেরা করছে। তবে অন্যান্য দিনের তুলনায় মানুষ কিছুটা আতঙ্কিত হয়ে উঠেছে। বুধবার (৮ এপ্রিল) সকাল থেকে শহরের গুরুত্বপূর্ণ স্থানগুলোতে র‌্যাবসহ অন্যান্য আইনশৃঙ্খলা বাহিনী কাজ করে যাচ্ছেন।
এদিকে টাঙ্গাইলের মির্জাপুরে একজন করোনা রোগী শনাক্ত হয়েছেন। মঙ্গলবার (৭ এপ্রিল) রাতে তাকে ঢাকায় পাঠানো হয়েছে। এদিকে শনাক্ত রোগীর বাড়িসহ আশপাশের ৩৫টি বাড়ি লকডাউন ঘোষণা করেছে প্রশাসন। বুধবার (৮ এপ্রিল) সকালে মির্জাপুর উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. মাকসুদা খানম বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।
জানা গেছে, শনাক্তকৃত ওই রোগী নারায়নগঞ্জের একটি ক্লিনিকে চাকুরী করতেন। গত রোববার (৫ এপ্রিল) তিনি নরায়ানগঞ্জ থেকে টাঙ্গাইলের মির্জাপুরে ভাওড়া বৈরাগী পাড়া গ্রামের বাড়িতে আসেন। তাঁর শরীরে করোনার উপসর্গ দেখা দিলে পরদিন সোমবার (৬ এপ্রিল) উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তার কার্যালয় থেকে তাঁর নমুনা সংগ্রহ করে পরীক্ষার জন্য ঢাকায় পাঠানো হয়। পরে মঙ্গলবার (৭ এপ্রিল) রাতে তাঁর করোনা শনাক্তের বিষয়টি নিশ্চিত হয় প্রশাসন। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার আবদুল মালেকের নেতৃত্বে চিকিৎসক দল আক্রান্ত ওই ব্যাক্তিকে ঢাকায় পাঠিয়েছেন।
এ বিষয়ে মির্জাপুর নির্বাহী কর্মকর্তা আবদুল মালেক টিনিউজকে জানান, রাতে অ্যাম্বুলেন্সযোগে তাঁকে ঢাকায় পাঠানো হয়। একই সঙ্গে তাঁর বাড়ির আশেপাশের প্রায় ৩৫টি বাড়ি লকডাউন করে দেয়া হয়েছে।

ব্রেকিং নিউজঃ