রবিবার, সেপ্টেম্বর 20, 2020
Home অর্থ ও ব্যবসা টাঙ্গাইলে পেঁয়াজের বাজারে ‘সেপ্টেম্বর’ আতঙ্ক

টাঙ্গাইলে পেঁয়াজের বাজারে ‘সেপ্টেম্বর’ আতঙ্ক

জাহিদ হাসান ॥
গত বছরের মতো এবারও সেপ্টেম্বরে পেঁয়াজের বাজারে অস্থিরতা দেখা দিয়েছে। এর ধারাবাহিকতায় টাঙ্গাইলের বাজারেও দাম বেড়েছে পেঁয়াজের। ভারতের বাজারে দাম বাড়ার খবরে দেশের বাজারেও বাড়ছে পেঁয়াজের দাম। টাঙ্গাইলের বাজারে ৪৫ টাকা কেজির দেশি পেঁয়াজ বিক্রি হচ্ছে ৬৫ থেকে ৭০ টাকায়। আমদানি করা ৩০ টাকা কেজির পেঁয়াজ বর্তমানে বিক্রি হচ্ছে ৫৫ টাকায়। ফলে আতঙ্কিত ভোক্তাসাধারণ।
অনেকে হুজুগে প্রয়োজনের চেয়ে বেশি পেঁয়াজ কিনে জমা করছেন। গত বছরও সেপ্টেম্বর থেকে বাড়তে থাকে পেঁয়াজের দাম। ৩০০ টাকা কেজির পেঁয়াজ খাওয়ার তিক্ত অভিজ্ঞতা এখনো ভোলেননি টাঙ্গাইলবাসী। টাঙ্গাইল শহরের পার্কবাজার, বটতলা, ছয়আনী বাজারসহ খুচরা বাজারগুলোয় দেখা গেছে, অনেকে প্রয়োজনের চেয়ে অতিরিক্ত পেঁয়াজ কিনছেন। বিক্রেতারা টিনিউজকে জানান, অনেকে তাঁদের কাছে অগ্রিম চাহিদা জানিয়ে রেখেছেন। সে অনুসারে তাঁরা প্রতিদিন বেশি করে পেঁয়াজ কিনে রেখেছেন।
পার্কবাজারে পেঁয়াজ কিনতে আসা আব্দুর রহিম নামের এক ব্যক্তি টিনিউজকে বলেন, আমাদের মধ্যবিত্তের সমস্যা; দাম একটু বাড়লেই বাজেটে চাপ পড়ে। এরই মধ্যে কেজিতে পেঁয়াজের দাম বেড়েছে ২৫ টাকা। গত বছরের মতো দেড়শ-দুইশ টাকা হলে কী যে হবে! তাই বেশি করে কিনে রাখছি। বটতলা বাজারের বিক্রেতা হামিদুল হক টিনিউজকে বলেন, বাজারে পেঁয়াজের দাম বাড়তি। অনেক ক্রেতা বেশি করে কিনছেন। অনেকে পাঁচ থেকে সাত কেজি করে অর্ডার দিয়ে রাখছেন। আমাদেরও আনতে হচ্ছে বেশি করে। গত বছর দেশে পেঁয়াজের কেজি ৩০০ টাকা পর্যন্ত উঠেছিল। ভারত থেকে পেঁয়াজ সরবরাহ বন্ধ হয়ে যাওয়ায় এ পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়েছিল।

 

 

 

ব্রেকিং নিউজঃ