টাঙ্গাইলে তামাক নিয়ন্ত্রণ আইনের খসড়া সংশোধনী প্রস্তাবনা বাস্তবায়নের দাবিতে প্ল্যাকার্ড প্রদর্শন

87

স্টাফ রিপোর্টার ॥
টাঙ্গাইলে স্বাস্থ্য মন্ত্রনালয় কর্তৃক তামাক নিয়ন্ত্রণ আইনের খসড়া সংশোধনী প্রস্তাবনা দ্রুত পাস করার দাবিতে প্ল্যাকার্ড প্রদর্শন ও খোলা চিঠি কর্মসূচি পালন করেছে ‘ডেভেলপমেন্ট অর্গানাইজেশন অব দ্য রুরাল পূওর’ (ডরপ)। শনিবার (৩১ ডিসেম্বর) সকালে সদর উপজেলা গালা ইউনিয়নের শিবপুর ও টাঙ্গাইল শহরের সাবালিয়া এলাকায় প্ল্যাকার্ড প্রদর্শন ও খোলা চিঠি কর্মসূচি পালন করা হয়।
এতে অংশ নেয় যুব ফোরামের চ্যাম্পিয়ন সদস্য আরিফুল ইসলাম, পর্শ সাহা, দিপু সাহা, জোবায়ের আহম্মেদ, জেলা বিড়ি শ্রমিক ইউনিয়নের সভাপতি লুৎফর রহমান, সাধারণ সম্পাদক জসিম উদ্দিন, বিড়ি শ্রমিক নাদের, জহুরুল ইসলাম, আব্দুল রহমান, শোভাষ, ডেভেলপমেন্ট অর্গানাইজেশন অব দ্য রুরাল পূওর (ডরপ) এর ফ্যাসিলিটেটর জাহাঙ্গীর আলম প্রমুখ।




ডেভেলপমেন্ট অর্গানাইজেশন অব দ্যা রুরাল পূওর-ডরপ এর সহযোগীতায় যুব ফোরাম ও বিড়ি লিডার/বিড়ির শ্রমিক স্বাস্থ্য মন্ত্রনালয় কর্তৃক তামাক নিয়ন্ত্রণ আইনের খসড়া সংশোধনী প্রস্তাবনা দ্রুত পাশ করতে হবে বলে দাবী জানান।
বক্তারা বলেন, তামাক নিয়ন্ত্রণ আইনের খসড়া সংশোধনীর পক্ষে মতামত দিয়েছেন ১৫৫ জন সংসদ সদস্য, উপাচার্য, শিক্ষক মন্ডলী ও শিক্ষার্থীবৃন্দ, ইমাম, পুরোহিত, চিকিৎসক, গবেষক, সাংবাদিক এবং বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান ও সংগঠনের প্রায় ১৬ হাজার মানুষ। কিন্তু আমরা লক্ষ্য করেছি তামাক নিয়ন্ত্রণ আইনের খসড়া সংশোধনীর পক্ষের এই জনমতকে ভিন্ন খাতে প্রবাহিত করার জন্য তামাক কোম্পানিগুলো ভুয়া জনমত সংগ্রহ করাসহ গণমাধ্যম ব্যবহার করে এই খসড়া সংশোধনীর বিভিন্ন ধারা ভুলভাবে উপস্থাপন করে জনগণ ও নীতি-নির্ধারকদের বিভ্রান্ত করার চেষ্টা করছে।
শেষে সমন্বয়কারী (অতিরিক্ত সচিব) জাতীয় তামাক নিয়ন্ত্রণ সেল, স্বাস্থ্য সেবা বিভাগ, স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যান মন্ত্রণালয় বরাবর যুব ফোরাম ও বিড়ি লিডার/শ্রমিকরা খোলা চিঠি প্রদান করার সিদ্ধান্ত করেন।

 

 

 

 

 

 

 

ব্রেকিং নিউজঃ