টাঙ্গাইলে ড্রাগ লাইসেন্স ছাড়াই অনেকে খেয়ালখুশিতে ফার্মেসি ব্যবসা

120

স্টাফ রিপোর্টার ॥
টাঙ্গাইলে ড্রাগ লাইসেন্স ছাড়াই অনেকে ফার্মেসি দিয়ে ব্যবসা করার অভিযোগ রয়েছে। নিয়মনীতির তোয়াক্কা না করে কেবল ট্রেড লাইসেন্স দিয়ে এসব ব্যবসা চালাচ্ছেন কতিপয় ব্যবসায়ীরা। এসব ফার্মেসিতে আমদানি করা নিষিদ্ধ ওষুধসহ নকল ও নিম্নমানের ওষুধ বিক্রি হয়ে থাকে। ফলে নকল ওষুধ কিনে প্রতিনিয়ত প্রতারিত হচ্ছেন মানুষ।




জানা যায়, অধিকাংশ ক্ষেত্রে ফার্মাসিস্ট কোর্স জটিলতায় টাঙ্গাইল জেলায় ড্রাগ লাইসেন্সবিহীন ফার্মেসীর সংখ্যা বাড়ছে। নতুন ড্রাগ লাইসেন্স করতে কিংবা পুরাতন ড্রাগ লাইসেন্স নবায়ন করতে গেলে ফার্মাসিস্ট কোর্স বাধ্যতামূলক করায় এ জটিলতা তৈরি হয়েছে। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক শহরের কয়েকজন ওষুধ ব্যবসায়ীরা টিনিউজকে বলেন, আমরা ড্রাগ লাইসেন্স করতে আগ্রহী। কিন্তু ফার্মাসিস্ট ছাড়া ওষুধ প্রশাসন থেকে কোনো নতুন লাইসেন্স দেয়া হচ্ছে না। এমনকি নবায়ন করতেও ফার্মাসিস্ট কোর্স ছাড়া সম্ভব নয়। পাশাপাশি ড্রাগ লাইসেন্স নবায়ন করতে গেলে নানা বিড়ম্বনায় পড়তে হয়। কর্তৃপক্ষ ট্রেড লাইসেন্সের কপি চায়। সেক্ষেত্রে ট্রেড লাইসেন্স নবায়ন করতে গেলে আরো হয়রানি হতে হয়। সব মিলে একটি জটিলতা সৃষ্টি হয়েছে।




জেলা ওষুধ প্রশাসন দফতরের কর্মকর্তারা টিনিউজকে বলেন, ফার্মাসিস্ট কোর্স বাংলাদেশ ফার্মেসি কাউন্সিল দেখে, কিন্তু মনিটরিং করি আমরা। ড্রাগ লাইসেন্স করতে হলে ফার্মাসিস্ট কোর্স সার্টিফিকেটও লাগে। লাইসেন্সবিহীন দোকান চিহ্নিত করা হয়েছে। এদের অনেকেরই আগে লাইসেন্সের জন্য আবেদন করা আছে। তবে যারা লাইসেন্স না নিয়ে ব্যবসা করছে তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে।




ক্যামিস্ট অ্যান্ড ড্রাগিস্ট অ্যাসোসিয়েশনের নেতৃবৃন্দ টিনিউজকে বলেন, ফার্মেসি কাউন্সিল নতুন নিয়ম করেছে। এতে যাদের ড্রাগ লাইসেন্স আছে, কিন্তু ফার্মাসিস্ট কোর্স নেই তাদের তা করতে হবে। অন্যথায় নতুন ড্রাগ লাইসেন্স করতে পারবে না। পুরাতন লাইসেন্সও নবায়ন হবে না।

 

 

ব্রেকিং নিউজঃ