টাঙ্গাইলে করোনায় ঈদের সেই আনন্দ হারিয়ে গেছে

10

হাসান সিকদার ॥
করোনা মহামারীর প্রকোপে দেশের বিভিন্ন জেলার মতো টাঙ্গাইলে এর প্রভাব পড়েছে। চলমান সংকটে আতঙ্কিত সময়ের মধ্যে আমাদের সময় পার হচ্ছে। পৃথিবীর চিত্র বলে দেয়, সব কিছু থমকে আছে। আজ বিজ্ঞানের অগ্রযাত্রার শিখরে আরোহন করেও মানুষের অসহায়ত্ব প্রকাশ পাচ্ছে করোনা ভাইরাসের প্রকোপের কাছে। আমাদের এবারের ঈদটি স্মরণীয় হিসেবে উল্লেখ থাকবে সকলের। এর মূল কারণ এমন সংকটময় পরিস্থিতিতে ঈদ উদযাপন আগে কখনো হয়নি। সুতরাং জীবনের এক কঠিন সময় নিশ্চয়ই অতিক্রম করছি। চলমান বৈশ্বিক মহামারীতে আমাদের আনন্দ, আমাদের খুশি বা ঈদের হাসি সবকিছু থমকে গেছে। চলছে করোনা মোকাবেলা করে টিকে থাকার যুদ্ধ।
ঈদ বাড়তি এক অনুভূতি নিয়ে হাজির হয় আমাদের মাঝে। ঈদের আনন্দ ভাগাভাগি করে মেলবন্ধন তৈরি হয় ভ্রাতৃত্বের। আমরা ঈদের দিন ঈদগাহে ঈদের নামাজ আদায় শেষে একে অন্যের সাথে কুলাকুলির মাধ্যমে কুশলাদি বিনিময় করে থাকি। আত্মীয়-স্বজন বা বন্ধু-বান্ধবের বাড়িতে বেড়াতে যাওয়া, আড্ডা দেয়া আমাদের চলমান সামাজিক প্রথার গুরুত্বপূর্ণ অংশ। তবে প্রচলিত সহজাত এ চিত্র পাল্টে নতুনভাবে উদযাপন হলো এবারের ঈদ। ইতিহাসের পাতায় হয়তো চলমান পরিস্থিতিতে উদযাপিত ঈদ অমর হয়ে থাকবে। আমরা স্মৃতির পাতা হাতরে হয়তো বা চমকিত হবো সময়ের আবহে। এবারের ঈদ সীমিত আকারে উদযাপিত ঈদ। চলমান সংকটে আমাদের মনে আনন্দের পরিবর্তে শঙ্কা বেশি। কেমন যেন গুমোট নিস্তব্ধ পরিবেশ। হালকা কিছু খাবার মুখে দিয়ে বেরিয়ে পড়া ঈদের নামাজ আদায়ের উদ্দেশ্যে। করোনা মহামারীর কারণে এবার ঈদগাহের পরিবর্তে মহল্লার মসজিদে সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে স্বল্প পরিসরে ঈদের নামাজ আদায় করা। যা ছিল আমাদের জীবনে এক নতুন অভিজ্ঞতা। নামাজ শেষে কোলাকুলি বা হাত মেলানোর প্রথা থেকে বেরিয়ে নিজের ঘরে দ্রুততম সময়ের মধ্যে ফিরে এসে পরিবারের সাথে সময় অতিবাহিত করেছে সবাই। সার্বিক পরিস্থিতি বলে দেয়, মানুষের মধ্যে চাপা আতঙ্ক অনুভূত হয়েছে। আনন্দের উচ্ছ্বাস যেন জীবনের শঙ্কার কাছে পরাজিত হয়েছে। এ বিজয় হয়তো বা করোনা ভাইরাসের।
দিন শেষে প্রত্যাশা, মহামারী করোনা ভাইরাসের প্রকোপ থেকে মুক্ত হবে পৃথিবী তথা টাঙ্গাইলবাসী। ঈদের যে প্রকৃত দিক হাসি এবং খুশি, তার প্রাণবন্ত উদযাপনে আমাদের উৎসবমুখর সময় অতিবাহিত হবে। আমরা আবারও স্বরূপে উদযাপন করবো ঈদ। দিন শেষে আমাদের এবারের ঈদ উদযাপন স্মৃতির পাতায় অমর হয়ে থাকবে। সমৃদ্ধ হয়েছে স্মৃতি, প্রত্যাশার ঝুলিতে কেটে যাক সংকট, মুক্ত পৃথিবীতে হোক মানুষের বিচরণ।

ব্রেকিং নিউজঃ