টাঙ্গাইলে আর্জেন্টিনার জার্সি ও পতাকা ব্যবসায়ীদেরও মাথায় হাত

121

এম কবির ॥
চার সহস্রাধিক কিলোমিটার দূরে চলতে থাকা ফুটবল বিশ্বকাপের আবেদন টাঙ্গাইলবাসীদের মধ্যে বরাবরের মতো এবারও বেশি। ফুটবলের সর্ববৃহৎ এ আসরে অংশ নেয়া দলগুলোর সমর্থক টাঙ্গাইল জেলাবাসীদের মধ্যে এতোটাই বেশি যে বিভিন্ন সময় খেলোয়াড় এবং দেশগুলো দূতাবাসের পক্ষ থেকেও সমর্থকদের প্রতি কৃতজ্ঞতা জানানো হয়েছে। তবে, এবার বিশ্বকাপে বড় দলগুলো বিশেষ করে আর্জেন্টিনা ও জার্মানি ক্রমাগত পিছিয়ে পড়ায় সমর্থকদের পাশাপাশি অনেকটাই হতাশ হয়ে পড়েছে ব্যবসায়ীরাও। জনপ্রিয় দলগুলোর জার্সি বিক্রির জন্য দোকানে তুলে এখন ক্ষতির আশঙ্কা করছেন তারা।
টাঙ্গাইল জেলায় কোনো দলের সমর্থকের সংখ্যা বেশি তার সঠিক কোনো হিসাব না থাকলেও চোখ বুজেই বলে দেয়া যায়, ব্রাজিল-আর্জেন্টিনার সমর্থকের সংখ্যা অন্যান্য দলগুলোর চেয়ে অনেক বেশি। তাই প্রতিবার বিশ্বকাপে এই দুই দলের জার্সি ও পতাকার চাহিদাও অনেক বেশি থাকে। তবে, গত বিশ্বকাপের পর থেকে টাঙ্গাইলে জার্মানির সমর্থকের সংখ্যাও বেড়েছে। ফুটবলে বাংলাদেশ ততোটা অগ্রসর না হলেও বাংলাদেশিদের সমর্থনে অনেকটাই বিস্ময় প্রকাশ করেছে গোটা বিশ্ববাসী। বড়-বড় পতাকা তৈরি থেকে শুরু করে নিজের বাড়িকেও প্রিয় দলের পতাকার রঙে রাঙিয়ে তুলেছেন অনেকে।
বাংলাদেশসহ টাঙ্গাইল জেলার ভক্তরা এমন সব পাগলামি করেন প্রিয় দলকে নিয়ে সেই টাঙ্গাইল জেলার ব্যবসায়ীরা জার্সি ও পতাকা বিক্রি নিয়ে একটু বেশি উচ্ছ্বসিত থাকবেন এটাইতো স্বাভাবিক। এ বছর তাদের কাছে একদিকে যেমন ছিল ঈদের আনন্দ। অন্যদিকে রয়েছে ফুটবল বিশ্বকাপ। তাই দোকানে দোকানে প্রচুর জার্সি ও পতাকা তুলেছিলেন তারা। তবে সপ্তাহ না পেরুতেই মন ভেঙেছে তাদের। কারণ হিসেবে তারা বলছেন, লাভ তো দূরের কথা, চালান উঠানোই অনেকটা কষ্টকর হয়ে যাবে এবার।
তাদের আশঙ্কার কারণ হলো, বিশ্বকাপে টাঙ্গাইল জেলায় অনেক সমর্থক রয়েছে আর্জেন্টিনা ও মেসির। এই দলটি প্রথম ম্যাচ ড্র করলেও খেলায় সন্তুষ্ট করতে পারেনি দর্শকদের। আর দ্বিতীয় ম্যাচে ৩-০ গোলে ক্রোয়েশিয়ার বিপক্ষে হেরে এতোটাই আশাহত করেছে যে অনেকেই এখন নিজেদের আর্জেন্টিনার সমর্থক হিসেবে নিজেদের পরিচয় দিতেও লজ্জা পাচ্ছেন। শুক্রবার (২২ জুন) সকাল থেকে ফেসবুকে দল ত্যাগের নানা পোস্টও ছড়িয়ে পড়ছে। অনেকে প্রতিজ্ঞা করেছেন কোন দিন আর আর্জেন্টিনার সমর্থনই করবেন না বলে। দল ত্যাগের হিড়িকও শুরু হয়েছে আর্জেন্টাইন সমর্থকদের মধ্যে।
অন্যদিকে, সবচেয়ে বেশিবার বিশ্বকাপ নেয়া দল ব্রাজিল তাদের ট্র্যাকে থাকলেও প্রথম ম্যাচ ড্র করেছে। দলটির সবচেয়ে জনপ্রিয় খেলোয়াড় নেইমার ইনজুরি ঝুঁকিতে থাকায় আতঙ্কে রয়েছেন দলটির সমর্থকরাও। দ্বিতীয় ম্যাচে ব্রাজিল নিজ ছন্দে ফিরে ২-০ গোলে কাঙ্খিত জয়লাভ করে। এতে করে ব্রাজিল ভক্ত-অনুরাগী ও সমর্থকরা দারুন উচ্ছশিত। এবার বিশ্বকাপে প্রথম ম্যাচে জার্মানির পরাজয়ের কারণে তেমন উচ্ছ্বাস দেখাতে ভয় পাচ্ছেন দলটির সমর্থকরাও। হেরে গেলেই পরিচিতজনরা মজা, ঠাট্টা করবেন এমন আশঙ্কায় বেশি উচ্ছ্বাস না দেখিয়ে অনেকটাই চুপচাপ রয়েছেন তারা।
জার্মানির নাগরিকরা অনেক ক্ষেত্রেই অহংকারী বলে পরিচিত হলেও টাঙ্গাইলে জার্মানির সমর্থক খুব বেশী নেই। ব্রাজিল-আর্জেন্টিনার সমর্থকরা এরই মধ্যে একে অপরকে ইয়ারকি ও তাচ্ছিল্য করতে গিয়ে মারামারি করে সংবাদের শিরোনাম হয়েছেন। সব জনপ্রিয় দলগুলোর পারফরমেন্স এবং তাদের সমর্থকদের মনের যখন এই অবস্থা তখন কপালে হাত তুলেছেন ব্যবসায়ীরা।
রোববার (২৪ জুন) টাঙ্গাইলের বিভিন্ন মার্কেট ঘুরে দেখা যায়, জার্সি ও পতাকা নিয়ে ব্যবসায়ীরা বসে থাকলেও দোকানগুলোতে ক্রেতাদের তেমন ভিড় নেই। কপালে হাত দিয়ে বসে আছেন তারা। দোকানগুলোতে দেখা গেছে, প্রত্যেকটি দোকানের মোট জার্সির প্রায় ৬০ থেকে ৭০ শতাংশই আর্জেন্টিনার জার্সি অবিক্রিত অবস্থায় পড়ে রয়েছে। যেহেতু আর্জেন্টিনা বিশ্বকাপ থেকে ছিটকে পড়ার দ্বারপ্রান্তে অবস্থান করছে তাই দলটির জার্সি ও পতাকা আর বিক্রি হওয়ার সম্ভাবনা খুবই কম। তাই বিপুল ক্ষতির আশঙ্কা করছেন জেলার ব্যবসায়ীরা।
জোবায়ের আহম্মেদ নামের এক ব্যবসায়ী টিনিউজকে বলেন, এবার আর্জেন্টিনার জার্সি তুলেছিলেন এক লাখ টাকারও বেশি। কিন্তু প্রথম ম্যাচের পর থেকেই জার্সি বিক্রি অনেক কমে গিয়েছিল। দ্বিতীয় ম্যাচে আর্জেন্টিনার হার এবং যা খেলেছে তাতে মনে হচ্ছে না এই দলের জার্সি ও পতাকা আর বিক্রি হবে। কারণ দ্বিতীয় ম্যাচে আর্জেন্টিনা পরাজয়ের পর থেকে গত তিনদিনে একটি জার্সি ও পতাকাও বিক্রি হয়নি। অপর একজন ব্যবসায়ী মালেক মিয়া টিনিউজকে বলেন, গত বৃহস্পতিবার (২১ জুন) পর্যন্ত বিক্রি মোটামুটি ভাল ছিল। কিন্তু যেভাবে একের পর এক অঘটন ঘটছে তাতে এবার আর্জেন্টিনা ও জার্মানির জার্সি ও পতাকার ব্যবসায় প্রচুর ক্ষতি হবে। মনে হচ্ছে চালান ওঠানো অনেকটাই কষ্টকর হয়ে পড়বে এবার। ব্যবসায়ী শফিকুল ইসলাম টিনিউজকে জানান, এখন ব্রাজিলের পতাকা ও জার্সি, পুর্তগালের রোনান্ডোর জার্সি বেশী বিক্রি হচ্ছে।

ব্রেকিং নিউজঃ