টাঙ্গাইলের ২৫ গুনীব্যক্তিকে শিল্পকলা একাডেমী সম্মাননা প্রদান

121

স্টাফ রিপোর্টার: শিল্প-সংস্কৃতিতে বিশেষ অবদানের টাঙ্গাইলে ১২ টি ক্যাটাগরিতে পাঁচ বছরের মনোনীত ২৫ জনকে জেলা শিল্পকলা সম্মাননা দেয়া হয়েছে।

রোববার (১৩ মার্চ ) সন্ধায় জেলা শিল্পকলা একাডেমির মিলনায়তনের মনোনীত গুণীজনদের সংবর্ধনা দেয়া হয়।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ফজলুর রহমান খান ফারুক। অনুষ্ঠানের উদ্বোধন করেন সংসদ সদস্য জোয়াহেরুল ইসলাম। জেলা প্রশাসক ড. মো. আতাউল গনির সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথি ছিলেন পুলিশ সুপার সরকার মোহাম্মদ কায়সার, জেলা আওয়ামী লীগের সিনিয়র যুগ্মসাধারণ সম্পাদক বীরমুক্তিযোদ্ধা খন্দকার আশরাফউজ্জামান স্মৃতি, সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান শাহজাহান আনছারী, টাঙ্গাইল প্রেসক্লাবের সভাপতি জাফর আহমেদ। অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন জেলা শিল্পকলা একাডেমির কালচালার অফিসার মো. এরশাদ হাসান।

২৫ জন গুনী ব্যক্তির হাতে সম্মনানা, ক্রেষ্ট, পদক ও উপহার সামগ্রী তুলে দেন অনুষ্ঠানের অতিথিবৃন্দ । পরে মনোঙ্গ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান পরিবেশিত হয়।

২০১৭ সালের মনোননীতরা হচ্ছেন, আবৃত্তিতে বীর মুক্তিযোদ্ধা বুলবুল খান মাহবুব, সৃজনশীল সংগঠনক বীরমুক্তিযোদ্ধা আলমগীর খান মেনু, নাট্যকলা বীর মুক্তিযোদ্ধা এ এম এনায়েত করিম, কণ্ঠসঙ্গীত, আবু বকর সিদ্দিক, চারুকলা রনজিৎ দাস, ২০১৮ সালের মনোননীতরা হচ্ছেন,  নাট্যকলা দুলাল আনোহলী, কণ্ঠসঙ্গীত মো. সামছুজ্জামান দারু, চারুকলা জাহিদ মুস্তফা, যাত্রা শিল্প মো. নুরুল ইসলাম (নুরু), নৃত্যকলা সুরাইয়া আক্তার পপি, ২০১৯ সালের মনোননীতরা হচ্ছেন, সৃজনশীল সংগঠক এসএম সিরাজুল হক আলমগীর, নাট্যকলা নিতাই লাল গৌড়, আবৃত্তি দেবাশীষ কুমার দেব, কণ্ঠসঙ্গীত ফিরোজ আহমেদ বাচ্চু, ফটোগ্রাফি ইকবাল হোসেন, ২০২০ সালের মনোননীতরা হচ্ছেন, লোক সংস্কৃতি রায়েজ উদ্দিন, চলচ্চিত্র সারোয়ার তমিজউদ্দিন, কণ্ঠসঙ্গীত আলপনা রায়, সৃজনশীল সংস্কৃতি গবেষক মো. ইউসুফ আলী মিয়া (তরুণ ইউসুফ), নাট্যকলা শাহ মো. ইছরাইল, ২০২১ সালের মনোননীতরা হচ্ছেন, কণ্ঠসঙ্গীত মো. কুদরত মাহমুদ, নাট্যকলা রতন কুমার দত্ত, চারুকলা খ. হুমায়ুন কবির, যন্ত্র সংগীত ছানোয়ার হোসেন ও যাত্রা শিল্প মিনা ইসলাম।

 

ব্রেকিং নিউজঃ